ঢাকা, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন:বিজয়ের মিছিল বের করে ঘরে ফিরলেন সাক্কু, বললেন মন খারাপ

২০২২ জুন ১৫ ২১:১৩:১৮
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন:বিজয়ের মিছিল বের করে ঘরে ফিরলেন সাক্কু, বললেন মন খারাপ

ভোটগ্রহণ শেষে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনের ফলঘোষণা শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে ৫৪টি কেন্দ্রের ফল জানা গেছে নির্বাচন কমিশন সূত্রে। তবে অসমর্থিত সূত্রে পাওয়া ফলাফল ৯৩টি কেন্দ্রে এগিয়ে থাকার সংবাদে আনন্দের মিছিল বয়ে যায় সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু শিবিরে। ওই সময়ই জয়োল্লাস ছড়িয়ে পড়ে তার অনুসারীদের মধ্যে।

বুধবার (১৫ জুন) রাত পৌনে ৮টার দিকেই নিজ বাসা ও বিভিন্ন স্থান থেকে আসা কর্মীসহ আনন্দ মিছিল বের করা হয় সাক্কুর কর্মী-সমর্থক-অনুসারীদের পক্ষ থেকে। তবে মিছিলটি কিছুক্ষণ পরই ফিরে যায় বাসায়। এসময় মনিরুল হক সাক্কু বলেন, মন খারাপ। তবে সব কেন্দ্রের ফলাফল জানার পরে কথা বলব।

এর আগে, মনিরুল হক সাক্কুর মিডিয়া গ্রুপে জানানো হয়, ৯৩টি কেন্দ্রে মনিরুল হক সাক্কু ৪৪ হাজার ৭৭৮ ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিপক্ষ আরফানুল হক রিফাত পেয়েছেন ৪৪ হাজার ৩৮৫ ভোট। এই ফলাফলেই জয়ের হাওয়া বয়ে যায় সাক্কুর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে।

এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফলে জয়ের আশা কতটুকু দেখছেন— জানতে চাইলে মনিরুল হক সাক্কু বিরক্তি প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, এখনো তো বাকি আছে ফলাফল ঘোষণা। আগে সব শেষ হোক। এরপরে মন্তব্য করব।

এদিকে, এখন পর্যন্ত ৫৪টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফল জানা গেছে নির্বাচন কমিশন সূত্রে। এই কেন্দ্রগুলোতে মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে এগিয়ে রয়েছেন নৌকা প্রতীকের আরফানুল হক রিফাত। তিনি পেয়েছেন ২৫ হাজার ১৪৫ ভোট। অন্যদিকে টেবিল ঘড়ি প্রতীকের প্রার্থী মো. মনিরুল হক সাক্কু পেয়েছেন ২৩ হাজার ৫৪৮ ভোট। নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী নিজাম উদ্দিন কায়সার পেয়েছেন ১২ হাজার ৬৮৬ ভোট।

এর আগে, বুধবার (১৫ জুন) সকাল ৮টা থেকে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট হয়েছে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে। ১০৫টি কেন্দ্রের সবগুলোতেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) দিয়ে ভোট নেওয়া হয়েছে। এরপর সন্ধ্যা ৬টার দিক থেকে কুমিল্লা জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ ও ফলাফল পরিবেশন কেন্দ্র থেকে ফলঘোষণার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

এর আগে, বৃষ্টির বাগড়ায় দিনভর ভোটারদের উপস্থিতির গতি কখনোই খুব একটা বেশি হতে পারেনি কুমিল্লা সিটিতে। যে কারণে বিকেল ৪টায় যখন ভোটগ্রহণের সময় শেষ, তখনো অনেকেই লাইনে দাঁড়িয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী ওই সময় পর্যন্ত অবশ্য যারা ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত ছিলেন, তাদের ভোট নেওয়া হয় ৪টার পরও।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী জানিয়েছেন, বিকেল ৩টা পর্যন্ত প্রায় ৬০ শতাংশ ভোট পড়েছে।

কুসিকের তৃতীয় এই নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন পাঁচ জন প্রার্থী। এর আগের দুই নির্বাচনেই মেয়র পদে ভোটে নির্বাচিত হন মনিরুল হক সাক্কু। এছাড়া এবারে কাউন্সিলর পদে ১০৮ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এই সিটি করপোরেশনে মোট ভোটার দুই লাখ ২৯ হাজার ৯২০। এর মধ্যে নারী ভোটার এক লাখ ১৭ হাজার ৯২, পুরুষ ভোটার এক লাখ ১২ হাজার ৮২৬।

পাঠকের মতামত:

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর



রে