ঢাকা, রবিবার, ৭ আগস্ট ২০২২, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৯

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ বনাম ভারতের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচ, দেখেনিন ফলাফল

২০২২ আগস্ট ০৫ ২২:৩২:০৮
হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ বনাম ভারতের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচ, দেখেনিন ফলাফল

না, পারলো না বাংলাদেশ। সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপে সব ম্যাচ জিতে ফাইনালে উঠলেও শেষ হাসি হাসতে পারেনি নোভা-মিরাজুলরা। শুক্রবার ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনালে বাংলাদেশকে ৫-২ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। নির্ধারিত সময়ের খেলা ২-২ গোলে শেষ হলে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

গ্রুপ পর্বে এই ভারতকেই ২-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২০ দলের ফুটবলাররা। কিন্তু ফাইনালে এসে সেই ভারতের বিপক্ষে আর পারলো না বাংলাদেশের যুবারা। অতিরিক্ত সময়ের শুরুর দিকে মাত্র ২ মিনিটের ব্যবধানে বাংলাদেশের প্রতিরোধ ভেঙে খানখান করে ফেলে ভারতীয়রা। শেষ পর্যন্ত ভারতের কাছে ৫-২ গোলের বড় ব্যবধানে হেরে শিরোপা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে বাংলাদেশ দলের ফুটবলারদের।

ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে পুরো টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত খেলা বাংলাদেশকে ফাইনালে পাড়া-মহল্লার দল বানিয়ে ফেলে স্বাগতিক যুবারা। ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিট ভারতের সঙ্গে সমানে সমান লড়াই করেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২০ দলের ফুটবলাররা। প্রথমে গোল হজম করে সেটিকে পরিশোধ করে দেয় তারা। প্রথমার্ধ শেষ হয় ১-১ গোলে। দ্বিতীয়ার্ধে নিজেরা গোল করে এগিয়ে গেলেও ভারত সমতায় ফিরে আসতে খুব বেশি সময় নেয়নি।

২-২ গোলে নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে। এই অতিরিক্ত সময়েই সমস্ত প্রতিরোধ ভেঙে পড়ে বাংলাদেশের। শুরুতেই তিন মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে বসে ভারতের অনূর্ধ্ব-২০ দলের ফুটবলাররা। এরপর করে আরও এক গোল। সব মিলিয়ে তাদের জয় ৫-২ গোলের ব্যবধানে।

২৫ সেকেন্ডে মালদ্বীপের রেফারির কল্যানে পেনাল্টি পেয়ে যায় ভারত। কিক অফের পরপরই বক্সের অনেক বাইরে থেকে শট নেন ভারতের হিমাংসু জাঙ্গরা। বাংলাদেশের গোলরক্ষক বল ঠেকিয়ে দিলেও বেশি দূর যায়নি। ফিরতি মারতে আসা গুরকিত সিংকে ট্যাকেল করেছিলেন গোলরক্ষক। পেনাল্টির বাঁশি বাজার মালদ্বীপের গোলরক্ষক।

বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা রেফারিকে ঘিরে ধরে প্রতিবাদ করলেও কোনো কাজে আসেনি। গুরকিংত সিং পেনাল্টি থেকে গোল করে এগিয়ে দেন ভারতকে। দ্বিতীয় মিনিটে ম্যাচে পিছিয়ে পরলেও বাংলাদেশ হতোদ্যম হয়নি। বরং ভারতের ওপর আক্রম বাড়িয়ে কয়েকটি সুযোগ তৈরি করে। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ সমতায় আসে প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে। গোল করেন রাজন হাওলাদার।

দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর তিন মিনিটের মধ্যে গোল করে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। শহিন মিয়ার অসাধারণ গোলে বাংলাদেশ ২-১ ব্যবধানে লিড নিয়েও সেটা ধরে রাখতে পারেনি। ৬০ মিনিটে গুরকিরাত সিং গোল করে ম্যাচে সমতা আনেন। ভারত ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে যেতে পারতো ৬৭ মিনিটে। কিন্তু তাদের একটি সুযোগ গোললাইন থেকে ক্লিয়ার করেন বাংলাদেশের ডিফেন্ডার আজিজুল হক অনন্ত।

নির্ধারিত সময়ে আর গোল না হলে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়। ৯১ মিনিটেই ভারত গোল করে এগিয়ে যায় হিমাংসু জাঙ্গরার গোলে। পরের মিনিটেই ব্যবধান ৪-২ করে ম্যাচ থেকে বাংলাদেশকে ছিটকে দেয় ভারত। শেষ পর্যন্ত ৪-২ গোলে জিতে সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতে নেয় স্বাগতিক ভারত। শেষ দুটি গোল করেন ভারতের গুরকিরাত সিং। তিনি চার গোল করে একাই বাংলাদেশকে বিধ্বস্ত করে ফেলে।

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে