ঢাকা, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ী নারী ফুটবলারদের জন্য ৭ দাবি

২০২২ সেপ্টেম্বর ২১ ২০:৪৬:১৫
সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ী নারী ফুটবলারদের জন্য ৭ দাবি

আরমান হোসেন সবুজ: অনেকদিন পর বাংলাদেশের ফুটবলে বইছে আনন্দের হাওয়া। মেয়েদের হাত ধরে ১৮ বছর পর এসেছে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা। সীমিত সামর্থ্যের মধ্যে থেকে এই অর্জন দেশের জন্য অনেক বড় পাওয়া। তাই অনেকে মনে করেন তাদের সুযোগ সুবিধা আরও বাড়িয়ে দিলে ভবিষ্যতে আরও বড় সাফল্য আসতে পারে এই মেয়েদের হাত ধরেই। বিভিন্ন মহল থেকে এই সোনার কন্যাদের জন্য কিছু দাবী উঠেছে।

১ পুরষ্কারঃ--এতো বছর পরে মেয়েরা যেভাবে দেশকে আনন্দে ভাসিয়েছে সে ভাবে তাদেরকেও যথাযথ ভাবে মুল্যায়ন করা হোক। বাফুফে বা সরকারের পক্ষ থেকে দলের সব সদস্যদের কে ১০ লাখ বা তার বেশি অর্থ পুরষ্কার হিসেবে যেন দেয়া হয়

২ বাড়ি তৈরীঃ- বিভিন্ন সময় দেশের ক্রিকেটীয় সাফল্যে খেলোয়ার বা কোচ কে যেভাবে প্লট বাড়ি তৈরী করে দেয়া হয়েছিল সেভাবে সাফ জয়ী নারী ফুটবল দলের সব সদস্যদের একটি করে বাড়ি বা প্লট দেয়া হোক। কারন এই দলের বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই উঠে এসেছে খুব দরিদ্র পরিবার থেকে।

৩ স্পনসরঃ- ফুটবলের এই জাগরণে খেলোয়াড় কোচ সবার জন্য বাফুফে যেন স্পনসর জোগার করে দেন।

৪ বেতনঃ- বাফুফে বিসিবির মতো আর্থিক ভাবে এতোটা শক্তি শালী নয়। তবুও একজন খেলোয়ারের বেতন ৮-১০ হাজার টাকাও খুবই কম। তাই সবার দাবী বাফুফে তাদের বেতন কিছুটা বাড়িয়ে দেন।

৫ নতুন খেলোয়ারঃ- শক্ত পাইপলাইন তৈরীর জন্য বাফুফে কম হলেও আরও ১০০ নারী ফুটবলার কে একটা বেতন কাঠামোর মধ্যে নিয়ে আসবেন এমনাই আশা করেন সবাই।

৬ লীগঃ- মেয়েদের ফুটবল লীগ নিয়মিত আয়োজনের পক্ষে অনেকেই মত পোষন করেন। পাশাপাশি বড় ক্লাবগুলোকে এই লিগে দল রাখার আহবান জানান।

৭ বীমাঃ- ফুটবল খুবই ইনজুরি প্রবন একটি খেলা। তাই সব নারী ফুটবলারদের কে বীমার আওতায় নিয়ে আসতে পারলে ইনজুরি কালিন সময়ে তারা একটা আর্থিক নিশ্চয়তা পাবে।

উপরের সব দাবি একা বাফুফের পক্ষে পুরন করা সম্ভব নয়। তাই দেশের বিভিন্ন শিল্প গ্রুপ সরকার বাফুফে সবাই যদি এগিয়ে আসে তাহলে ভবিষ্যতে এই মেয়েদের হাত ধরেই বাংলাদেশের ফুটবলে আরও ওনেক আনন্দের উপলক্ষ তৈরী হবে বলে সকলের অভিমত।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে