ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বিপিএল নিয়ে বিসিবির বড় মুখ ছোট হয়ে গেল

২০২২ সেপ্টেম্বর ২৬ ১৯:১৪:২৪
বিপিএল নিয়ে বিসিবির বড় মুখ ছোট হয়ে গেল

চলতি বছরের মার্চে এক সাক্ষাৎকারে সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, টি-টোয়েন্টি লিগগুলোর মধ্যে বিপিএলের অবস্থা পাঁচ-ছয়। দেশের সেরা ক্রিকেটারের মুখে এমন মন্তব্য মেনে নিতে পারেননি, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপন।

এক সাক্ষাৎকারে সাকিবের মন্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করে পাপন বলেছিলেন, আমি এখন পর্যন্ত তিনটি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের কথাই শুনেছি, আইপিএল, বিগ ব্যাশ ও বিপিএল। অন্য লিগগুলোর কথা লোকে বলে না। আমার কাছে আইপিএল ও বিগ ব্যাশের পরেই বিপিএলের অবস্থান।

কেবল বিসিবি সভাপতি নয়, বিপিএল নিয়ে এমন বড় মুখ ছিল টুর্নামেন্টটির আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিকের। একবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টির জগতে আইপিএলের পরেই অবস্থান বিপিএলের।

তবে সময়ের পরিক্রমায় বিসিবির এই বড় মুখ ছোট হয়ে গেছে। বিপিএল নিয়ে বাস্তবতা বুঝতে শিখেছে আয়োজক কমিটি। সহজ স্বীকারোক্তিতে মেনে নিয়েছে বিপিএল-আইপিএল দূরে থাক, পিএসএলের মানেও করা সম্ভব নয় তাদের পক্ষে। গণমাধ্যমে আলোচনার সময় এভাবেই নিজেদের অসহায়ত্ব স্বীকার করে নেন, বিপিএলের আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার।

তিনি সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমে কথা বলতে গিয়ে বলেন, তখন কিন্তু এতগুলো টুর্নামেন্ট হতো না। সে জায়গায় আমরা ভালো অবস্থায় চলে গিয়েছিলাম। এখন বিশ্বে অনেকগুলো ভালো টুর্নামেন্ট চলে এসেছে।

সিপিএল হচ্ছে, পিএসএল হচ্ছে, বিগ ব্যাশ হচ্ছে, ইউএই লিগ এলো, সাউথ আফ্রিকা করছে, সামনে শ্রীলঙ্কা করবে। এটা তুলনা করা কঠিন। আমরা চাই আমাদের ঘরোয়ার মধ্যে অন্যতম সেরা টুর্নামেন্ট করতে চাই। আগের প্যারামিটার দিয়ে বলতে পারব না আমরা একেবারে আইপিএলে মানের বা পিএসএলের যে মানে করতে যায়, সেটা আমাদের জন্য করা এই মুহূর্তে কঠিন হবে।

নিজেদের অসহায়ত্বের কারণ জানিয়ে ইসমাইল হায়দার আরও বলেন, এটা অনেক খরচের ব্যাপার। তাহলে একেকটা ফ্র্যাঞ্চাইজি বিক্রি করতে হবে অনেক টাকায়। আমাদের অন্য মডেলে যেতে হবে। এখন পর্যন্ত হোম অ্যান্ড অ্যাওয়েতেই যেতে পারি না। আমাদের ভেন্যু রেডি না এজন্য। আমাদের ওয়ান অব দ্য বেস্ট ঘরোয়া টুর্নামেন্ট করতে চাই।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে