ঢাকা, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯

পাকিস্তানে এশিয়া কাপে ভারত অংশ নেবে কিনা তা নিয়ে মুখোমুখি হচ্ছে বিসিসিআই-পিসিবি

২০২৩ জানুয়ারি ২৪ ১৪:৫৫:০৬
পাকিস্তানে এশিয়া কাপে ভারত অংশ নেবে কিনা তা নিয়ে মুখোমুখি হচ্ছে বিসিসিআই-পিসিবি

এশিয়া কাপে ভারত পাকিস্তানে যাবে কিনা সে বিষয়সহ নানা বিতর্কের সমাধান খুঁজতে আলোচানায় বসতে যাচ্ছে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড।পাকিস্তানে এশিয়া কাপে ভারত অংশ নেবে কিনা সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নয় কেউই। আপাতত ভারতের ভাষ্যমতে এ বছরের এশিয়া কাপে পাকিস্তানে যাবে না রোহিত শর্মার দল। সেইসাথে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দলের বিতর্ক আরও চড়াও হয় এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) আগামী দুই বছরের সূচি ঘোষণার পর।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) দাবি করে 'একতরফভাবে' দেওয়া হয়েছে ২০২৩-২৪ সালের এশিয়ার ক্রিকেটসূচি। এসব বিষয়ে আলোচনায় বসতে যাচ্ছে পিসিবি এবং ভারতের ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি বাহরাইনে আলোচনায় বসবে ভারত ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

এ বছর এশিয়া কাপের আয়োজক পাকিস্তান। সবকিছু ঠিক থাকলে প্রতিযোগিতা হওয়ার কথা ২ থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর। কিন্তু গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ জানিয়েছিলেন, এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তানে যাবে না ভারত। এশিয়া কাপ সরিয়ে নেওয়া হবে নিরেপক্ষ ভেন্যুতে।

জয়ের এমন মন্তব্যের পর থেকে শুরু হয় বিতর্ক। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) তখনকার চেয়ারম্যান রামিজ় রাজাও পাল্টা ক্ষোভ জানিয়ে বলেছিলেন, রোহিত-বিরাট কোহলিরা এশিয়া কাপ খেলতে তার দেশে না গেলে ভারতের মাটিতে এক দিনের বিশ্বকাপ বয়কট করবে পাকিস্তান।

উল্লেখ্য, এসিসির সভাপতি পদে আছেন বিসিসিআইয়ের সচিব জয়। তিনিই নতুন করে আবারও বিতর্ক জন্ম দেন আগামী দুই বছরের জন্য এশিয়ার ক্রিকেটসূচি প্রকাশ করে।

এদিকে ভারত পাকিস্তানে যাবে কিনা বা নতুন কোন ভেন্যুতে এশিয়া কাপ হবে এ নিয়ে নতুন করে কোনও মন্তব্য করা হয়নি বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে। তাই ধোঁয়াশা এখনও কাটেনি এশিয়া কাপ নিয়ে।

এ বিতর্কের সমাধান করতে এসিসিকে হস্তক্ষেপ করার অনুরোধ করে পিসিবি। পাকিস্তানের আবেদনে সাড়া দিয়ে বাহরাইনে বসতে যাচ্ছে এসিসির এক্সিকিউটিভ কমিটির বৈঠক। ওই বৈঠকে অংশ নেবে বিসিসিআই ও পিসিবি।সোমবার পিসিবি চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি জানিয়েছেন, দুবাইয়ে গিয়ে তিনি এসিসি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। তাঁদের পরিস্থিতি সম্পর্কে বুঝিয়েছেন। সে কারণেই এই বিশেষ বৈঠক ডেকেছে এসিসি।

শেঠি বলেন, ‘‘এসিসি বাহরাইনে বৈঠক করবে ৪ ফেব্রুয়ারি। এশিয়া কাপ এবং ভারতের অবস্থান নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা সেখানে। আইসিসি বৈঠকেও আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে। মার্চ মাসে বৈঠক হওয়ার কথা। এসিসির সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে দুবাইয়ে কথা বলেছি। আশা করছি ইতিবাচক কিছু হবে। কারণ ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেট সম্পর্ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’’

যেহেতু এসিসির সভাপতি পদে আছেন জয় শাহ, তাই এসিসির বৈঠকে বিসিসিআই ও পিসিবির আলোচনা কতটা সমাধানের মুখ দেখবে সেটাই দেখার বিষয়।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে