ঢাকা, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ হারলে নেতৃত্ব ছাড়তে বাধ্য হবেন রোহিত শর্মা

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ ফেব্রুয়ারি ০৬ ২২:০৩:২০
অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ হারলে নেতৃত্ব ছাড়তে বাধ্য হবেন রোহিত শর্মা

এই সিরিজে বড় ব্যবধানে জিতলে ‘টিম ইন্ডিয়া’র কাছে খুলে যাবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের দরজা। একইসাথে জয় পেলে অস্ট্রেলিয়াকে সরিয়ে বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং-এ পয়লা নম্বরে চলে আসবে ভারতীয় দল। একই সময়ে টেস্ট, একদিনের ক্রিকেট এবং টি-২০ তে পয়লা নম্বরে থাকার অনন্য রেকর্ড গড়তে পারে ‘মেন ইন ব্লু।’

সিরিজ হারলে অবশ্য হতাশা ছাড়া জুটবে না কিছুই। ঘরের মাঠে ট্রফি খুইয়ে তোপের মুখে পড়বে দল। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে এমনিতেই আতসকাঁচের নীচে রয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশেষ করে রোহিত শর্মার নেতৃত্ব নিয়ে সরব হচ্ছেন অনেকে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজ হারলে টেস্টেও তাঁকে সরানোর দাবী ওঠা অসম্ভব নয়।

দীর্ঘ দশ বছর আইসিসি ট্রফির স্বাদ পায় নি ভারতীয় দল। ২০১৩ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের পর শুন্যই রয়ে গিয়েছে ভারতীয় দলের ঝুলি। বারবার সেমিফাইনাল বা ফাইনালে গিয়ে খালি হাতে ফিরে আসতে হয়ে ভারতীয় দলকে। ধোনির পর নেতা হয়েছেন বিরাট কোহলি, তাঁকে সরিয়ে আনা হয়েছে রোহিত শর্মাকে। কিন্তু আসে নি সাফল্য। ২০২২ এর টি-২০ বিশ্বকাপে আশা জাগিয়ে শুরু করেছিলো ভারতীয় দল।

কিন্তু সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হেরে থেমেছে ‘টিম ইন্ডিয়া’র জয়যাত্রা। সাফল্যের মুখ দেখতে আসন্ন বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালকেই পাখির চোখ করছে ভারতের ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা BCCI। গত সাইকেলে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিলো বিরাট কোহলির ভারতের।

এবার প্রথমে ফাইনালের যোগ্যতা অর্জন এবং শেষমেশ ট্রফি জয়ই লক্ষ্য ভারতের। ইনসাইড স্পোর্টসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভারতীয় বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, “স্পষ্ট বার্তা দিতে চাই আমরা। আরো একটা আইসিসি ট্রফির ফাইনালে হার আমরা বরদাস্ত করতে পারবো না। যদি আমরা বিশ্বমঞ্চে কোনো টুর্নামেন্ট না জিতি তাহলে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের সাফল্যের কোনো মানে থাকে না। গত দুই বছরে তিনখানা এমন ফাইনাল হেরেছি আমরা। রোহিত জানে এই ব্যাপারে। জানে দলের বাকি সকলেই। ট্রফিখরা কাটাতে সকলেই মরিয়া।”

আগামী বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের চার টেস্টের সিরিজ। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের টিকিট কনফার্ম করতে ভারতকে অন্তত ২ ম্যাচের ব্যবধানে অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে হবে। নূন্যতম ২-০ হতে হবে ফলাফল। অথবা ৩-১ জিততে হবে রোহিতবাহিনীকে। ফর্মে থাকা অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে কাজটা কঠিন হলেও অসম্ভব নয়।

টি-২০ বিশ্বকাপে হারের পর থেকেই আতসকাঁচের তলায় রয়েছে রোহিতের নেতৃত্ব দানের ক্ষমতা। অনেকেই সীমিত ওভারের খেলায় তাঁকে সরিয়ে হার্দিক পান্ডিয়াকে পাকাপাকিভাবে অধিনায়কের দায়িত্ব সঁপে দেওয়ার পক্ষে মত দিচ্ছেন। এই দাবী আংশিক মেনে রোহিতকে টি-২০ তে ‘বিশ্রামে’ পাঠিয়ে নেতার ভার তুলে দেওয়া হয়েছে হার্দিকের হাতে। যদি ভারতের মাঠে অঘটন ঘটিয়ে সিরিজ জিতে নেন অজিরা তাহলে টেস্ট ক্রিকেটেও সমালোচনার মুখে পড়বে রোহিতের অধিনায়কত্ব।

বোর্ড কি টেস্ট রোহিতকে সরানোর কথা ভাবছে? “এখনও আমরা নেতৃত্বে বদল নিয়ে কিছু ভাবি নি। কিন্তু একটি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ সাইকেল শেষ হলে আবার নতুন একটি শুরু হয়। ফলাফল কেমন হয় সেদিকে তাকিয়ে পরবর্তী আলোচনা হবে। তখনই ঠিক হবে রোহিত আগামীতে দলের নেতা থাকবেন কিনা।” হেঁইয়ালী জিইয়ে রেখে জানিয়েছেন বিসিসিআই কর্তা।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে