ঢাকা, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১

মৃত্যুর আগেও সোহান আঙ্কেল মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গেলেন : শাবনূর

বিনোদন ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ সেপ্টেম্বর ১৪ ১৫:৪১:০৩
মৃত্যুর আগেও সোহান আঙ্কেল মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গেলেন : শাবনূর

স্ত্রী বিয়োগে শোকে কাতর ছিলেন ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান। স্ত্রী প্রিয়া রহমানের মৃত্যুর ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে সোহানও চলে গেলেন। বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মারা গেছেন এই তারকা পরিচালক। তার অকস্মাৎ এই মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা ইন্ডাস্ট্রি।

তার মৃত্যুর খবর পেয়েই শোকপ্রকাশ করেছেন অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত অভিনেত্রী শাবনূর। তবে সেই শোকবার্তায় রয়েছে ক্ষোভ ও আক্ষেপের সূরও।

পোস্টে শাবনূর লেখেন, ‘সোহান আঙ্কেল যাবার আগে আমার বিরুদ্ধে মিডিয়াতে কিছু উল্টা-পাল্টা ও মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গেলেন। আমাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন ও আমার সম্মানহানি করে গেলেন। অনেকই তার কটুকথার বিরুদ্ধে পাল্টা জবাব দিতে বলেছিলেন। আমি চাইলেই মিডিয়াতে তার এই মিথ্যা অপবাদের প্রতিবাদ করতে পারতাম।’

অভিনেত্রী আরও লেখেন, ‘এর আগেও উনি কোনো এক ইন্টারভিউতে আমার বিরুদ্ধে এরকম বাজে মন্তব্য করেছিলেন। তখনও আমি তার অপবাদের বিরুদ্ধে কোনো পাল্টা জবাব দেইনি। সোহান আঙ্কেল অনেক বয়োজ্যেষ্ঠ, আমার পিতৃতুল্য। আমি কোনো অন্যায় করলে উনি আমাকে শাসন করতে পারতেন। এইতো কিছুদিন আগেও তার সাথে আমার ফোনে আলাপ হয়েছিল। তখন তাকে জিজ্ঞেস করেছিলাম আঙ্কেল আপনি কি কোনো কারণে আমার ওপর রাগ করে আছেন? আপনি যে আমার বিরুদ্ধে মিডিয়াতে উল্টা-পাল্টা কথা বলতেছেন। তিনি তখন বললেন তুই আমাদের ইন্ডাস্ট্রির মেয়ে, আমার মেয়ের মতো, তোর ওপর কেন রাগ করতে যাব। আর আমিতো তোর বিরুদ্ধে কোনো বাজে কথা বলিনি। এর পরে আমার বিরুদ্ধে গত সপ্তাহে তিনি আবারও মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গেলেন’

‘কিন্তু আমার একটাই দুঃখ আমি জানতে পারলাম না উনি কেন বা কার চক্রান্তে প্রভাবিত হয়ে আমার পেছনে উঠে পড়ে লেগেছিলেন। যাই হোক, আমি সবার উদ্দেশ্যে একটা কথা বলতে চাই, ভাই জীবনটা খুবই ছোট্ট। এত দাঙ্গা ফাসাদ করে কি লাভ? একে অন্যের বিরুদ্ধে না লেগে আসুন আমরা সবাই মিলে মিশে থাকি। গন্তব্যতো একটাই, সবাইকে এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করতে হবে। যেহেতু ক্ষমা একটি মহৎ গুণ, তাই আমি ওনাকে মাফ করে দিলাম। আমি আঙ্কেল ও তার স্ত্রীর রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।’

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে