ঢাকা, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অতিরিক্ত প্রণোদনার কারণে বাড়ছে রেমিটেন্স

অর্থনীতি ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ অক্টোবর ২৯ ২২:৫৮:০৮
অতিরিক্ত প্রণোদনার কারণে বাড়ছে রেমিটেন্স

অতিরিক্ত উদ্দীপনার কারণে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ডলারের দাম বেশি পাচ্ছেন। ফলে বৈধ উপায়ে আপনার টাকা পাঠানোর হার বেড়েছে। এটি ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স বাড়ায়। রোববার (২৯ অক্টোবর) বাংলাদেশ ব্যাংকের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

বলা হয় যে ২৭ অক্টোবর আইনি চ্যানেলের মাধ্যমে ১৬৫ কোটি টাকা এসেছে। যা গত সেপ্টেম্বরের পুরো মাসের চেয়ে বেশি।

অর্থনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বৈদেশিক মুদ্রার সংকট কাটাতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো বেশি দামে ডলার কিনছে। সরকার প্রবাসী আয়ে আড়াই শতাংশ প্রণোদনা দেয়। এর পাশাপাশি আড়াই শতাংশ বেশি দামে ডলার কিনছে ব্যাংকটি। ফলে বৈধ পথে দেশে টাকা পাঠালে মোট ৫ শতাংশ প্রণোদনা পাচ্ছেন প্রবাসীরা। এতে রেমিটেন্স প্রবাহ বেড়েছে।

এখন প্রতি ডলারে প্রবাসী বাংলাদেশিরা পাচ্ছেন প্রায় ১১৬ টাকা। যেখানে আগে তারা সর্বোচ্চ ১১১ টাকা পেতেন। ফলে রেমিট্যান্স প্রবাহ বেড়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, চলতি মাসের ২৭ তারিখে দেশে এসেছে ১৬৪ কোটি ৯৩ লাখ ডলার। এর মধ্যে ১১.৯ মিলিয়ন ডলার এসেছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের মাধ্যমে এবং ৪.৯৬মিলিয়ন ডলার এসেছে বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে।

এর বাইরে বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ১৪৭ কোটি ৫৬ লাখ ৯০ হাজার ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৫০ লাখ ডলার।

চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে রেমিট্যান্স ক্রমাগত কমেছে। বিশেষ করে গত সেপ্টেম্বরে দেশটি বড় ধরনের হোঁচট খেয়েছিল। ওই মাসে গত সাড়ে তিন বছরে (৪১ মাস) সর্বনিম্ন অভিবাসী আয় দেখা গেছে। যার পরিমাণ ছিল ১৩৪ মিলিয়ন ডলার। এর আগে ২০২০ সালের এপ্রিলে, অভিবাসীরা মিলিয়ন পাঠিয়েছিল।

২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথম মাসে জুলাই মাসে ১৯৭ কোটি ৩১ লাখ ৫০ হাজার ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। আগস্টে এসেছে ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ ৫০ হাজার ডলার। ১ মাসের ব্যবধানে কমেছে ৩৭ কোটি ৩৭ লাখ ডলার।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



রে