ঢাকা, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

দুই ওপেনারকে হারিয়ে চাপে কিইউ দল, দেখে নিন সর্বশেষ স্কোর

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ নভেম্বর ২৯ ১১:৩৯:২০
দুই ওপেনারকে হারিয়ে চাপে কিইউ দল, দেখে নিন সর্বশেষ স্কোর

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস থেমেছে ৩১০ রানে। জবাবে কিউই দল প্রথম ইনিংস শুরু করে। বড় রানের সুযোগ তৈরি করলেও শেষ পর্যন্ত তা করতে পারেনি টিম বাংলাদেশ। কম পুঁজির কারণে বোলারদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। সেখানে দারুণ সাফল্য দেখাচ্ছেন তাইজুল-মিরাজ। কিউইদের ৫০ রানে পৌঁছানোর আগেই দুই ওপেনারকে ফিরিয়ে দেন তারা।

কিউই দলের ইনিংসের ১৩তম ওভারে দলের স্কোর ৩৬ রান হলে স্পিনার তাইজুল ইসলামের বলে টম ল্যাথামকে ফেরত পাঠান। তাইজুলের বলে সুইপ খেলতে গিয়ে নাঈম হাসানের হাতে ক্যাচ আউট হন ল্যাথাম।এরপর ১৬তম ওভারে ডেভন কনওয়েকে ফেরালেন স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। মিরাজের বলে খেই হারিয়ে শর্টে শাহাদাত হোসেনের হাতে ক্যাচ হন এই কিউই ওপেনার। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কিউইদের সংগ্রহ ১৭ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৫০ রান।

এর আগে মঙ্গলবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। দিন শেষে নাজমুল হোসেন শান্তর দল ৯ উইকেট হারিয়ে ৩১০ রান করে। আজ বুধবার আবারও মাঠে নামে বাংলাদেশ। কিন্তু গতকালের অপরাজিত ব্যাটসম্যান শরিফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলাম রান করতে পারেননি। দিনের প্রথম বলেই আউট (এলবিডব্লিউ) শরিফুল। ফলে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ হয় ৩১০ রানে।

স্ট্রাইকে থেকে ১৩ রানে অপরাজিত থাকা ব্যাটার শরিফুল আজ রীতিমতো স্ট্রাইক নেন। কিন্তু পেসার টিম সাউদির প্রথম বলেই লেগবিফোর উইকেটের (এলবিডব্লিউ) এর ফাঁদে পড়েন শরিফুল। যদিও প্রথমে আউটের সিদ্ধান্ত দেননি আম্পায়ার। পরে সাউদির রিভিউ নিলে সিদ্ধান্ত বদলাতে বাধ্য হন আম্পায়ার আহসান রেজা।

এর আগে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে বাংলাদেশের ব্যাটাররা ভুলেই এটি আসলে কোন ফরম্যাটের খেলা। তাদের যেন ছিল অদৃশ্য এক তাড়া। একমাত্র মাহমুদুল হাসান জয় ছাড়া কেউই টেস্টের ব্যাটিংটা করতে পারলেন না কেউ। ফলে পুঁজিটাও তেমন বড় করতে পারেনি স্বাগতিক দল।

অথচ একটা সময় ২ উইকেটেই ছিল ১৮০ রান। মনে হচ্ছিল, বাংলাদেশ বেশ ভালো অবস্থানেই পৌঁছে গেছে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। কিন্তু সেখান থেকে আর ৫৩ রান তুলতে ৫টি উইকেট হারিয়ে বসে টাইগাররা।

বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেছেন ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করার আগেই ধরা পড়েন ইশ সোধির হাতে। ১৬৬ বলে ১১ বাউন্ডারি হাঁকানো এই ব্যাটার সোধির বলে ড্যারেল মিচেলের ক্যাচ হন।

এরপর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হক করেন সমান ৩৭ রান। ফিলিপসের ফুট টাচ বলে মিড-অনে উইলিয়ামসনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন পিচে সেট হওয়া শান্ত। ফিলিপসের দ্বিতীয় শিকার হন মুমিনুল। অভিজ্ঞ এই ব্যাটার ক্যাচ হন উইকেটরক্ষক টম ব্লান্ডেলের হাতে।

এরপরই মুলতঃ বিপত্তি ঘটে বাংলাদেশের। ৫৩ রানে হারায় ৫ উইকেট। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে ৩১০ রানে দিন শেষ করে বাংলাদেশ।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে