ঢাকা, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০

ব্রাজিলের মত কাউকে পেল না আর্জেন্টিনা

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ ডিসেম্বর ০১ ২০:৫১:০৬
ব্রাজিলের মত কাউকে পেল না আর্জেন্টিনা

জার্মানির কাছে হেরে আরেকটি ধাক্কা খেয়েছে আর্জেন্টিনা। এবার তারা চমকে দিল পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালি। অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে আলবিসেলেস্তে যুবদলকে হারিয়েছে তারা।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় ইন্দোনেশিয়ার মানাহান স্টেডিয়ামে ম্যাচটি হয়। ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে মালি। এই পরাজয়ের ফলে চতুর্থ স্থানে থাকা আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপে তাদের যাত্রা শেষ করে। খালি হাতেই বাড়ি ফিরতে হয়েছে আলবিসেলেস্তেদের তরুণদের। আর মালি ব্রোঞ্জ পদক নিয়ে তৃতীয় হয়েছেন।

অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা কখনোই ফাইনাল খেলতে পারেনি। বিশ্বকাপে তাদের সেরা সাফল্য তিনবার তৃতীয় স্থানে থেকে বিশ্বকাপ শেষ করা। ২০০৩ সালের বিশ্বকাপে শেষবার তৃতীয় স্থানে থেকে যাত্রা শেষ করেছিল তারা। এ নিয়ে তিনবারের মতো চতুর্থ হয়ে বিশ্বকাপ শেষ করলো আলবিসেলেস্তে যুবারা। এর আগে তারা ২০০১ ও ২০১৩ সালে চতুর্থ স্থানে থেকে বিশ্বকাপ শেষ করেছিল।

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে এদিন ম্যাচের শুরুতেই গোল খেয়ে বসে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৯ম মিনিটে সেকিও কোনের অ্যাসিস্টে গোল করে মালিকে এগিয়ে নেন স্ট্রাইকার ইব্রাহিম দিয়ারা। এরপর গোল শোধে মরিয়া আর্জেন্টিনা বারবার প্রতিপক্ষের রক্ষণে হামলে পড়ে। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি। উল্টো প্রথমার্ধের বিরতির আগে ৪৫তম মিনিটে মামাদু দুম্বিয়া মালির লিড দ্বিগুণ করেন। ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠে আলবিসেলেস্তে যুবারা। তবে ম্যাচের ৪৮তম মিনিটে হামিদু মাকাওলু মালির হয়ে তৃতীয় গোল করেন। এরপর আর ম্যাচের ফিরতে পারেনি লাতিন আমেরিকার দেশটি। কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালে হ্যাটট্রিক করা দুই খেলোয়াড় দলের হয়ে হার ঠেকাতে পারেননি।

পুরো ম্যাচে ৫২ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রাখে মালি। আর্জেন্টিনার গোলমুখে তারা মোট ৩৩টি শট করে, যার মধ্যে ১৫টিই ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে ৪৮ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখে মাত্র ৮টি শট করতে পারে আর্জেন্টিনা, যার ৪টি ছিল লক্ষ্যে। এ পরিসংখ্যানে বুঝা যায় ম্যাচে কতটা আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছিল পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালি।

এর আগে ইন্দোনেশিয়ার মাটিতে হওয়া এই বিশ্বকাপে পরাজয় দিয়েই মিশন শুরু করেছিল আর্জেন্টিনা। তবে এরপর টানা দুই ম্যাচে জয় শেষ ষোলো নিশ্চিত হয় আলবিসেলেস্তে জুনিয়রদের। সেখানেও জয় নিশ্চিত করে তারা পা রাখে কোয়ার্টার ফাইনালে।

কোয়ার্টারে মুখোমুখি হয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের। হাইভোল্টেজ ম্যাচটিতে সেলেসাওদের রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে মেসির উত্তরসূরিরা। ব্রাজিলের যুবাদের ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমিতে পা রাখে তারা। সেখানে ক্লাদিও এচেভেরির একাই করেছিলেন ৩ গোল।

ব্রাজিলকে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে প্রতিপক্ষ হিসেবে জার্মানিকে পায় আলবিসেলেস্তে যুবারা। সেখানে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচটি নির্ধারিত সময়ে ৩-৩ গোল ড্র হয়। ফলাফল নির্ধারণে তাই টাইব্রেকারে গড়ায় ম্যাচ। সেখানে আর্জেন্টিনাকে ৪-২ গোলে পরাজিত করে ফাইনাল নিশ্চিত করে জার্মানি। সেমিতে দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক করেন আর্জেন্টিনার অগাস্টিন রবার্তো। কিন্তু তা দলের জয় পেতে সাহায্য করেনি।

উল্লেখ্য, অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপের যাত্রা শুরু হয় ১৯৮৫ সালে। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত নাইজেরিয়া সর্বোচ্চ ৫ বার, ব্রাজিল ৪ বার, ঘানা ও মেক্সিকো ২ বার করে ছোটদের এই বিশ্বকাপ জিতলেও আর্জেন্টিনা এখন পর্যন্ত ফাইনালেই উঠতে পারেনি। তিনবার অবশ্য তৃতীয় হয়েছে আর্জেন্টিনা। এবার সেটাও হতে পারলো না।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে