ঢাকা, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

রোহিতকে ক্যাপ্টেন বানাতে যা যা করেছিলেন সৌরভ (ভিডিওসহ)

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ ডিসেম্বর ০৪ ১৯:০০:৩৭
রোহিতকে ক্যাপ্টেন বানাতে যা যা করেছিলেন সৌরভ (ভিডিওসহ)

বিরাট কোহলির সঙ্গে সৌরভ গাঙ্গুলীর সমস্যা আজ কারও অজানা নয়। একবার শোনা গিয়েছিল, সৌরভ ইচ্ছাকৃতভাবে বিরাটের কাছ থেকে অধিনায়কত্ব কেড়ে নিয়ে রোহিত শর্মার হাতে তুলে দিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে বেশ তোলপাড় হয়েছে। সেইসময় বিরাট আবার একেবারেই রানের মধ্যে ছিলেন না। ফলে সমালোচনা একেবারে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে।

ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে সৌরভ গাঙ্গুলী নিজেই এক অধ্যায়। এক সময়ের অধিনায়ক হিসেবে, তিনি প্রায় এককভাবে টিম ইন্ডিয়াকে কঠিন পরিস্থিতি থেকে বের করে এনেছিলেন। আর ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর বিসিসিআই-এর প্রশাসক হিসেবে বিশ্বের নজর কেড়েছিলেন তিনি। তবে ২২ গজের লড়াই হোক বা প্রশাসকের উইকেট, সৌরভের সামনে রাস্তা কখনই গোলাপী ছিল না। অনেক সমালোচনা হজম করতে হয়।

সেই সমালোচনার তালিকায় অন্যতম হল সৌরভ নাকি বিরাট কোহলির থেকে অধিনায়কত্ব কেড়ে নিয়ে তা রোহিত শর্মার হাতে তুলে দিয়েছেন। সম্প্রতি দাদাগিরি'র মঞ্চে যাবতীয় ধোঁয়াশা দুর করে দিয়েছেন। স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে বিরাট কোহলিকে যেমন অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেননি। ঠিক তেমনই রোহিত শর্মাকে অধিনায়ক করার ব্যাপারে তাঁর কোনও প্রত্যক্ষ মদতও ছিল না।

এই অনুষ্ঠান চলাকালীন সৌরভের সামনে একটি ভিডিয়ো চালানো হয়েছিল। সেখানে বলা হয় যে অধিনায়ক বিরাটকে আবার 'ব্য়াটার' বিরাটে ফিরিয়ে আনার যাবতীয় কৃতিত্ব সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়েরই। পাশাপাশি তিনিই রোহিত শর্মাকে ভারতীয় ক্রিকট দলের নয়া অধিনায়ক হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন। ভিডিয়ো শেষ হওয়ার পর এই অংশটার তীব্র বিরোধিতা করেন সৌরভ। তিনি বলেছেন, 'পুরোটা ঠিক নয়। বিরাট কোহলিকে আমি ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরাইনি। এটা আমি আগেও বহুবার বলেছি। বিরাট নিজেই টি-২০ ক্রিকেটে ক্যাপ্টেন্সি করতে চায়নি। তারপর আমি বলি যে তুমি টি-২০ ক্রিকেটে যখন ক্যাপ্টেন্সি করবেই না, তখন সাদা বলের ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব ছেড়ে দাও। একজন সাদা বলে ক্যাপ্টেন্সি করুক, আর একজন লাল বলে।'

এরপর তিনি আরও যোগ করেন, 'রোহিত শর্মাকে অধিনায়ক করার ব্যাপারে আমার পুশ হয়ত কিছুটা ছিল। কারণ ও সব ফরম্যাটে ক্যাপ্টেন হতে চাইছিল না। সেক্ষেত্রে আমি কিছুটা হয়ত সাহায্য করেছি। তবে একটা কথা সবসময় মনে রাখতেই হবে যে মাঠে কিন্তু ক্রিকেটাররাই খেলে। যত বড় প্রশাসক হোন না কেন, মাঠে ক্রিকেটারদেরই পারফর্ম করতে হবে।' সৌরভের এই মন্তব্য শোনার পর গোটা মঞ্চে হাততালির বন্যা বইতে শুরু করে।

এই প্রসঙ্গে আপনাদের জানিয়ে রাখি, সদ্য সমাপ্ত একদিনের ক্রিকেট বিশ্বকাপে রোহিত শর্মা দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন। ভারতীয় ক্রিকেট দল এই টুর্নামেন্টে টানা ১০ ম্যাচ জিতে ফাইনালে উঠেছিল। কিন্তু, শেষপর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল অন্তিম ম্যাচে ৬ উইকেটে জয়লাভ করে। টিম ইন্ডিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে হেরে গেলেও ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকেরা রোহিত শর্মার অধিনায়কত্বের প্রশংসা করতে কুণ্ঠাবোধ করেননি।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে