ঢাকা, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করল ভারত, বিশ্বকাপে হারের পর এমন সিদ্ধান্ত

জাতীয় ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ ডিসেম্বর ০৮ ২১:৫৯:৩৮
পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করল ভারত, বিশ্বকাপে হারের পর এমন সিদ্ধান্ত

অভ্যন্তরীণ সরবরাহ বজায় রাখতে এবং ক্রমবর্ধমান দাম নিয়ন্ত্রণে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি নিষিদ্ধ করেছে। এই নিষেধাজ্ঞা ৩১ মার্চ, ২০২৪ পর্যন্ত বহাল থাকবে। শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) ভারতের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

বলা হচ্ছে, ভারতের কৃষকরা ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের নেওয়া সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা প্রতিবাদ জানায়। পুলিশ জানায়, ওই দিন মহারাষ্ট্রের নাসিক জেলার ৩টি জায়গায় শত শত পেঁয়াজ চাষি মুম্বাই-আগ্রা মহাসড়ক অবরোধ করে।

এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, গত ৪ থেকে ৫ দিন ধরে নাশিকের লাসালগাঁও, নন্দগাঁও, পিম্পালগাঁও ও উমারেনে বিক্ষোভ করছেন কৃষকরা। এখনও সেটা অব্যাহত আছে। ফলে এসব মার্কেট বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, শত শত পেঁয়াজ চাষি মুম্বাই-আগ্রা হাইওয়েতে সমবেত হন। ৩ স্থানে কিছু সময় ধরে ট্রাক্টর ব্যবহার করে সড়কে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন তারা।

ওই কর্মকর্তা বলেন, মালেগাঁওয়ের জাইখেদা, চান্দওয়াড়, উমরানে, নন্দগাঁও ও মুঙ্গসেও রাস্তা রোকো (বন্ধ) করেন কৃষকরা। পরে নাসিক পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিক্ষোভকারীদের শান্তিপূর্ণভাবে ছত্রভঙ্গ করা হয়। এক্ষেত্রে তাদের ওপর কোনও বল প্রয়োগ করা হয়নি।

গত অক্টোবরের শুরুতে দাম নিয়ন্ত্রণে সরকারি গুদাম থেকে ২৫ রুপি দরে ভর্তুকি মূল্যে খুচরা বাজারে পেঁয়াজ সরবরাহ করে কেন্দ্রীয় সরকার। তবু কাজ হয়নি।

এর আগে পেঁয়াজের রপ্তানি মূল্য নির্ধারণ করে দেয় ভারতের ভোক্তা বিষয়ক বিভাগ। প্রতি মেট্রিক টনের সর্বনিম্ন দাম ৮০০ মার্কিন ডলার ধার্য করে তারা। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে। এরই মধ্যে নতুন করে পেঁয়াজের রপ্তানি বন্ধ করলো তারা।

এরও আগে গত আগস্টে পেঁয়াজের রপ্তানিতে ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে তারা। চলমান বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এটি কার্যকর থাকবে। অবশেষে রপ্তানিই নিষিদ্ধ করে দিলো মোদি সরকার।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে