ঢাকা, শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

টানা ৬ ম্যাচে তামিমের বোল্ড আউট হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন নাফিস

২০১৯ জুলাই ৩০ ০৯:৫৫:২৩
টানা ৬ ম্যাচে তামিমের বোল্ড আউট হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন নাফিস

হাতের ব্যাটটাকে যেন সঠিক সময়ে ঢাল হিসাবে ব্যবহার করতে ব্যর্থ হচ্ছেন তামিম ইকবাল। যার ফলস্বরূপ টানা ৬ ম্যাচে বোল্ড আউট হয়ে মাঠ ছেড়েছেন। তবে এভাবে বোল্ড আউট হওয়াটাকে তামিমের দুর্বলতা হিসাবে দেখছেন না, তার বড় ভাই ও সাবেক টাইগার ব্যাটসম্যান নাফিস ইকবাল।

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩২ বার বোল্ড আউট হয়েছেন তামিম। বাঁহাতি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাকের টানা ৫ ম্যাচে বোল্ড হওয়ার রেকর্ড ভেঙে এখন সর্বোচ্চ টানা ৬ বার বোল্ড হওয়ার লজ্জার রেকর্ডও বসেছে তার নামের পাশে। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের শেষ ৪টি ম্যাচ ও পরবর্তীতে শ্রীলঙ্কার সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেই প্রতিপক্ষ বোলাররা তামিমকে বোল্ড করেছে।

সর্বশেষ ৬ ইনিংসে যথাক্রমে মিচেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া), মোহাম্মদ নবী (আফগানিস্তান), মোহাম্মদ শামি (ভারত), শাহিন শাহ আফ্রিদি (পাকিস্তান), লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা) ও ইসুরু উদানা (শ্রীলঙ্কা) শিকার করেছেন তামিমকে। উক্ত ৬ বোলারের মধ্যে ৫ জনই পেসার।

বাংলাদেশের নতুন ওডিআই অধিনায়কের অগ্রজ নাফিস এই ধরনের আউটকে তামিমের দুর্বলতা মানতে নারাজ। বরং তিনি কিছুটা দুর্ভাগ্য হিসেবেই দেখছেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘পরিষ্কারভাবেই এটা তার (তামিম) দুর্বলতা নয়। আপনি যদি খেয়াল করে দেখেন, সম্প্রতি তার কিছু আউট ছিল দুর্ভাগ্যবশত। সে টানা বোল্ড হয়েছে ঠিকই, তবে তার মধ্যে কিছু অসাধারণ ডেলিভারিও ছিল।’

আউট হওয়ার ধরনের ক্ষেত্রে নেতিবাচকতা না দেখালেও ছোট ভাইয়ের সাম্প্রতিক ফর্ম যে খুব একটা ভালো না সেটা স্বীকার করতে দ্বিধা করেননি নাফিস, ‘সে এখন বেশ বাজে সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। তবে এই মুহূর্তেও যে ২৮/৩০ গড়ে রান করেছে তাতে তাকে নিয়ে আমি গর্বিত।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘সে একজন পরীক্ষিত ক্রিকেটার এবং নিঃসন্দেহে দ্রুতই আবার ছন্দে ফিরবে। দলে অভিজ্ঞরা আছে এবং আমি নিশ্চিত তারা এটা নিয়ে বিশেষ ভাবে কাজ করছে।’

বাংলাদেশের সাবেক ব্যাটসম্যান নাফিস, তামিমেও ছন্দে ফেরার ব্যাপারে খুবই আশাবাদী। এক যুগেরও অধিক সময় ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা তামিমের নতুন করে আর নিজের কোনো কৌশল বদলানোর প্রয়োজন বলেই মনে করেন তিনি।

নাফিস বলেন, ‘সে দীর্ঘদিন ধরে ক্রিকেট খেলছে। আমার মনে হয় না, এখন আবার তার কোনো কৌশলে পরিবর্তন আনার দরকার আছে! তাকে একটু ধৈর্য্য ধরতে হবে। আমার বিশ্বাস আছে তার সামর্থ্যেও ওপর।’

উল্লেখ্য, এই বছর একদিনের ক্রিকেটে ১৭টি ম্যাচ খেলে মাত্র ৪৪০ রান সংগ্রহ করেছেন তামিম। অর্ধশতক ৩টি তবে কোনো শতক নেই। ব্যাটিং গড়ও মাত্র ২৫.৮৮!

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে