জম্মু-কাশ্মীর উপত্যকায় শান্তি এবং স্থিতিশীলতা রক্ষা করতে পাকিস্তান ও ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সৌদি আরব। একই সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরের মানুষের স্বার্থ বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছে দেশটি। বৃহস্পতিবার সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ভারতীয় সংবিধান থেকে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিলের পর জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছে সৌদি।

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘটনায় সৌদি আরব উদ্বিগ্ন বলে ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন। আন্তর্জাতিক সংশ্লিষ্ট প্রস্তাবনা অনুযায়ী, উপত্যকার শান্তিপূর্ণ ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান সৌদি এই কর্মকর্তা।

গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলে ভারতীয় সিদ্ধান্তের পর পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই চিরবৈরী প্রতিবেশীর মাঝে উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। পাকিস্তানের সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ নজরদারি এবং প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

কাশ্মীরের মর্যাদা বাতিলের একদিন পর বুধবার ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার ও নয়াদিল্লি থেকে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়। ভারতের সঙ্গে সব ধরনের বাণিজ্য স্থগিত ও সমঝোতা ট্রেনের চলাচলও বন্ধ করে দিয়েছে দেশটি।

কাশ্মীরে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়গুলোকে সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে কাশ্মীর ইস্যুকে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় উল্লেখ করে কূটনৈতিক সম্পর্ক কমিয়ে আনতে পাকিস্তান যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছে নয়াদিল্লি।