ঢাকা, শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ৩ মাঘ ১৪২৭

কে এই আনিসুল ইমন, খুঁজেছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট

২০২০ নভেম্বর ২৮ ২০:০৮:০৮
কে এই আনিসুল ইমন, খুঁজেছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) দেশীয় ক্রিকেটার খুঁজে বের করার অন্যতম বড় প্ল্যাটফর্ম। জাতীয় দল কিংবা যে কোনো পর্যায়ের বেশীরভাগ ক্রিকেটাররা এখান থেকেই উঠে আসেন। ক্রিকেটারদের এই উঠে আসার তালিকায় নতুন নাম আনিসুল ইসলাম ইমন। যিনি চলতি বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে খেলছেন মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর হয়ে।

২০১৯ সালে ২২ বছর বয়সে শীর্ষ পর্যায়ে অভিষেক হয় ইমনের। নারায়ণগঞ্জে জন্ম নেওয়া এই তরুণ ক্লেমন ক্রিকেট একাডেমির ছাত্র। ২০১৯ সালে ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে শেখ জামালের বিপক্ষে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে প্রথম ম্যাচ খেলেছিলেন। সেই ম্যাচে ৩ রানের জন্য অর্ধশতক মিস করেন তিনি।

ডিপিএলের প্রথম অভিষেক মৌসুমে ৪ ফিফটিতে ৩২.৬ গড়ে ৪২৪ রান করেন ইমন। এরপর এবছরের প্রিমিয়ার লিগে মাত্র একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেও সেখানেও ব্যাটিং দক্ষতার প্রমাণ দিয়েছেন তিনি। লিজেন্ডস অফ রুপগঞ্জের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই ৫৯ রানের ইনিংস খেলেন এই ব্যাটসম্যান।

মূলত তার ফিফটিতে ভর করেই ২৫ রানের জয় পায় ওল্ড ডিওএইচএস। ব্যাটিং ছাড়াও বোলিংয়েও পারদর্শী এই তরুণ।২৫.৬৬ গড়ে নিয়েছেন ৬ টি উইকেটও। চলতি টি-টোয়েন্টি কাপেও ব্যাটিং দিয়ে নজর কেড়েছেন তিনি। প্রথম ম্যাচে ৩৩ করলেও খেলেছেন বেশ কয়েকটি নজরকাড়া ইনিংস।

রাজশাহীর কোচ সারোয়ার ইমরান জানিয়েছিলেন, প্রিমিয়ার লিগে খেলা দেখেই ইমনকে দলে নিয়েছে রাজশাহী। এবার ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম) চেয়ারম্যান জানালেন, ইমন সম্পর্কে খোঁজ করেছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপনও।

টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ চলাকালীন ইমনের ব্যাটিং দেখে আকৃষ্ট হয়েছিলেন নাজমুল হাসান। কাজি এনাম বলেন, ‘দেখেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ক্ষেত্র দুইটা জিনিস ইমপরট্যান্ট আমি মনে করি এটার বিকল্প কোনকিছু নাই। এখানে কিন্তু সবচেয়ে বেশি প্লেয়ার আমাদের খেলে। আমাদের সবগুলো ফরম্যাটই ইমপরট্যান্ট বিসিএল হোক বা জাতীয় লিগ।

এটার যে ট্রেডিশন আছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ আমাদের বোর্ড প্রেসিডেন্টও প্রথম খেলায় বললো যে আনিসুল প্লেয়ারটা কোন টিম থেকে?’ ‘সে কোন সিস্টেমের কোন জায়গা থেকে আমাদের কিন্তু ধারণা নাই। অথচ সে কিন্তু গত দুই বছর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলেছে ভালো খেলেছে।

সো এই টাইপের প্লেয়ারদের কিন্তু আলাদা আলাদা ক্লাব তৈরি করে সেখানে কিন্তু তারা সুযোগটা পায়। এবং তারচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আমাদের অধিকাংশ ক্রিকেটারেরই এটাই কিন্তু উপার্জনের জায়গা। সো যেহেতু এটা তাদের আর্নিংয়ের মেইন জায়গা সেই বিষয়টাও কিন্তু আমাদের বিবেচনা করতে হবে এবং এই বিষয়েও আমি ক্লাবদের সাথে বারবার কথা বলেছি’ আরও যোগ করেন তিনি।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে