ঢাকা, সোমবার, ৮ মার্চ ২০২১, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৭

বাংলাদেশ ক্রিকেট ও অধিনায়ক তামিমের ভাবনা

২০২১ জানুয়ারি ১৯ ১৮:৪৫:৩২
বাংলাদেশ ক্রিকেট ও অধিনায়ক তামিমের ভাবনা

প্রত্যেকটি দেশের নিজস্ব একটি ক্রিকেটীয় ব্র্যান্ড আছে। যারা কিনা সেই ধারাতে খেলতে অভ্যস্ত। শুধু কি তাই? সেই ধারা অব্যাহত রেখে আরাধ্য সাধন করেছে দলগুলো। ভারত, অস্ট্রেলিয়া কিংবা ইংল্যান্ডের মতো দলগুলো নিজেদের ব্র্যান্ড ক্রিকেট প্রতিষ্ঠিত করেছে।

যদিও স্বকীয় কোনো ব্র্যান্ড ‍তৈরি করে উঠেতে পারেনি বাংলাদেশ। গেল কয়েক বছরে ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের উন্নতি হলেও এথনও নিজেদেরকে পরাশক্তি হয়ে উঠতে পারেনি তারা। তবে বাইরের দেশকে অনুসরণ না করে নিজেদের একটি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট তৈরি করতে চান তামিম ইকবাল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে অধিনায়ক হিসেবে হচ্ছে তামিমের। এদিকে বেশ কিছুদিন ধরেই বাঁহাতি এই ব্যাটম্যানের ব্যাটিং নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। ব্যাটিংয়ের চাপ সামলানোর সঙ্গে অধিনায়কত্বের চাপ কতটা সামলাতে পারবেন সেটাই এখন দেখার বিষয়। তবে আপাতত এসব বাদ দিয়ে নিজস্ব ব্র্যান্ডের ক্রিকেট তৈরি করতে চান তিনি।

এ প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ‘আমি সবসময় বাংলাদেশি স্টাইল অব ক্রিকেট, বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট গড়ে তোলার দিকে গুরুত্ব দেই। প্রত্যেকটা দেশের নিজস্ব স্টাইল আছে। আমি মনে করি না আমাদের অন্য কাউকে অনুসরণ করা উচিৎ। অনেক জায়গায় বলেছে হয়ত আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজের মত শক্তিশালী না, ওদের মত বিল্ডআপ না। আমাদের এমন অনেক এডভান্টেজ আছে যা অন্যদের দলে নেই। তাই কাউকে অনুসরণ না করে বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট তৈরি করতে চাই। আমরা যেগুলো খেলতে পারি তা দিয়েই।’

প্রায় ১০ মাস আগে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পেলেও এখনও অভিষেক হয়নি তাঁর। তবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মাঠে নামার আগে করোনাকালীন বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ এবং বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। যদিও সেখানে তাঁর দল সফলতা পায়নি। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অধিনায়ক হিসেবে আক্রমণাত্বক থাকবেন নাকি রক্ষণাত্বক সেটা পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ প্রসঙ্গে তামিমের ভাষ্য, ‘এটা একটা ভালো দিকই বলতে পারেন যে জাতীয় দলে শুরুর আগে দুইটা টুর্নামেন্টে অধিনায়কত্ব করতে পেরেছি। দুর্ভাগ্যবশত মহামারির কারণে আমরা অনেক ক্রিকেট হাতছাড়া করেছি। দুই টুর্নামেন্টই আমার জন্য কঠিন ছিল। স্টাইল বা ব্র্যান্ড সময়ের সাথে সাথে গড়ে উঠবে। আমি যদি এখন একটা কথা বলি আর পরিস্থিতি ভিন্ন থাকে, তাহলে সেটা অনুসরণ না করলে তো আর হল না। সময়ের সাথে সাথে বুঝতে পারব কোন পথে এগোচ্ছি। তাই পরিস্থিতি বুঝতে হবে। কখনো রক্ষণাত্মক হতে হয়, কখনো আক্রমণাত্মক হতে হয়।’

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে