ঢাকা, বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

৬ ছক্কা মারার পর ম্যাচ শেষে তার কথায় অবাক ক্রিকেট বিশ্ব

২০২১ মার্চ ০৫ ১১:০৯:০১
৬ ছক্কা মারার পর ম্যাচ শেষে তার কথায় অবাক ক্রিকেট বিশ্ব

প্রথম বলে ছক্কা। দ্বিতীয় বলেও তাই। তৃতীয় বলে ছক্কা হওয়ার পর পোলার্ড ভাবলেন এটিকে ছয় ছক্কায় নেয়া যেতে পারে। হলোও তাই। গড়ে ফেললেন দারুণ এক রেকর্ড। আকিলা ধনাঞ্জয়ের এক ওভারে হাকালেন ছয় ছয়টি বিশাল ছক্কা।

অথচ এর আগের ওভারেই হ্যাটট্রিক করেছিলেন লঙ্কান স্পিনার ধনাঞ্জয়া। সেই কি না পরের ওভারে এভাবে বেধড়ক মার খাবেন, তা কল্পনাতেও ভাবেননি তিনি। কিন্তু বাস্তবে তাই হলো।প্রথম বলটি লেংথ ডেলিভারি, হাঁটু গেড়ে লং অনের ওপর দিয়ে ওড়ান পোলার্ড। দ্বিতীয় বল স্টাম্পে হাফভলি, এবার বোলারের মাথার ওপর দিয়ে সাইটস্ক্রিনে। তৃতীয় ডেলিভারিও হাফভলির মতো, অফ স্টাম্পের বাইরে। এবার ছক্কা লং অফ দিয়ে।

চতুর্থ ডেলিভারি একটু টেনে দেন ধনাঞ্জয়া। পোলার্ড হাঁটু গেড়ে স্লগ করে পাঠান মিড উইকেট বাউন্ডারিতে। পঞ্চম বলটি ধনাঞ্জয়া করেন লেগ স্পিন, অফ স্টাম্পের বাইরে পিচ করে টার্ন করে বেরিয়ে যাচ্ছিল। পোলার্ড গায়ের জোরে সেটিকে ভাসিয়ে দেন লং অনের ওপর দিয়ে।

ছয় ছক্কা এড়াতে এরপর অ্যাঙ্গেল বদলে রাউন্ড দা উইকেট আসেন ধনাঞ্জয়া। কিন্তু লাভ হয়নি। লেগ স্টাম্পে থাকা বল কবজির জোরে ফ্লিক করেন পোলার্ড। বল আছড়ে পড়ে মিড উইকেট গিয়ে গ্যালারিতে। সতীর্থদের কুর্নিশ করে পোলার্ড উদযাপন করেন ছয় ছক্কা।

ম্যাচের পর পোলার্ড জানালেন তার ছয় ছক্কার ইতিকথা। তিনি বলেন, ‘তৃতীয়টির পর আমার মনে হচ্ছিল, ছয় ছক্কা মারতে পারি। সুপার ফিফটিতেও এটা করেছি (ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘরোয়া এক দিনের ম্যাচের টুর্নামেন্ট, ৫ ছক্কা মেরেছিলেন)। আমি স্রেফ নিজের ওপর আস্থা রেখেছি। পঞ্চম ছক্কার পর জানতাম, বোলারকে চাপে ফেলে দিয়েছি। সে রাউন্ড দা উইকেট দিয়েছিল, কাজটা কঠিন ছিল তার জন্য। আমি স্রেফ নিজেকে বলেছি, ‘করে ফেলো।’

টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে এক ওভারে ছয় ছক্কার রেকর্ড গড়লেন পোলার্ড। প্রথম করে দেখিয়েছিলেন যুবরাজ সিং, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে স্টুয়ার্ট ব্রডের ওভারে। ওয়ানডেতে ছয় ছক্কার রেকর্ড শুধুমাত্র দক্ষিণ আফ্রিকার হার্শেল গিবসের।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে