ঢাকা, বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ৫ কার্তিক ১৪২৮

ভালো তরমুজ কেনার উপায়

২০২১ এপ্রিল ১০ ১৪:৫১:১৫
ভালো তরমুজ কেনার উপায়

কদিন আগে আমি দুটি তরমুজ কিনেছিলাম। কেনার পর তরমুজ বিক্রেতা বলেছিলেন, ‘ভাই, জিতছেন! তরমুজটা লাল আর মিষ্টি হবে।’ বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, বিক্রেতার কথাই সত্যি ছিল। আমি ‘জিতছি’। সমস্যা হলো, প্রমাণ দাখিলের মতো কোনো ছবি আমার কাছে নেই। তবে আজ আমি আপনাদের বলব সেই ভালো তরমুজ কেনার গোপন রহস্য।

প্রথমে তরমুজের দোকানে গিয়ে কুশল বিনিময় করুন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে ব্যবসা-বাণিজ্য ভালো না। খানিকটা খোঁজখবরমূলক কথাবার্তা চালাচালি করে পরিবেশটা একটু হালকা করে নিন। অথবা যে আলোচনা তরমুজ বিক্রেতার পক্ষে যাবে, সে রকম কোনো কথাও তুলতে পারেন। যেমন দেশের পরিস্থিতি, বাজার পরিস্থিতি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংকট, তেলের দাম বৃদ্ধি ইত্যাদি। ভুলেও ‘মুখে কেন মাস্ক নেই’–জাতীয় প্রশ্ন করবেন না!

তারপর ধীরে ধীরে বলুন, ‘ভাই, এ বছর এখনো তরমুজ কেনা হয় নাই। এখন একটা কেনার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু আমি ভাই ভালো তরমুজ চিনি না। আপনি নিজে থেকে একটা বাছাই করে দেন না। বোঝেনই তো, সংসারে সবার সঙ্গে মিলেমিশে থাকতে হয়। তরমুজ খারাপ হলে ঘরে গিয়ে আমার অবস্থা কী হবে, ভাবেন!’

তারপর একটা দীর্ঘশ্বাস ছাড়ুন। তবে মুখে মাস্ক থাকলে সমস্যা আছে। মাস্কের আড়াল থেকে দীর্ঘশ্বাস বোঝা যায় না। তাই জোরেশোরে দীর্ঘশ্বাস ছাড়ুন এবং সেটা আপনার চোখের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলুন। শরীরী ভাষায়ও যেন দীর্ঘশ্বাসের ছাপ থাকে।

এসবের মানে হলো, আপনি তরমুজ কেনার ব্যাপারে বিক্রেতার কাছে শতভাগ ‘সারেন্ডার’ করবেন। নিজের মধ্যে কোনো ভাবসাব রাখবেন না। হিংসা, বিদ্বেষ, রাগ, ক্ষোভ—সব ঝেড়ে ফেলুন। তরমুজ কিনতে গিয়ে ‘বেশি বুঝি বেশি জানি’ এমন ভাবই তরমুজ ভালো না হওয়ার প্রধান কারণ। তারপর তরমুজ বিক্রেতা তিনটি তরমুজ কানের কাছে নিয়ে তিনটি বাড়ি মারবেন। চতুর্থটা তিনি দেবেন আপনাকে। এবং তিনি বলবেন, ‘এইটা ভালো হবে, বিশ্বাস রাখেন।’

বিক্রেতা তরমুজ দিলে তা নিয়ে সোজা বাসায় চলে আসবেন। ভুলেও জিজ্ঞেস করতে যাবেন না, ‘ভাই, কানের কাছে বাড়ি দিয়ে আপনি ক্যামনে বোঝেন, কোন তরমুজ ভালো?’

জিজ্ঞেস করেছেন তো মরেছেন। আপনার হাতের যে তরমুজ নিয়ে যাচ্ছেন, সেটা ভালো হবে না। এটা নিশ্চিত!

তারপর আর কি? বাসায় গিয়ে পরিবারের সবার উপস্থিতিতে তরমুজটা কাটুন। তরমুজ অবশ্যই ভালো হবে, লাল হবে এবং মিষ্টি হবে।

তবে ‘বাই অ্যানি চান্স’ ওই তরমুজ যদি ভালো না হয়, তাহলে দুঃখ পাবেন না। মনে রাখবেন, এই তরমুজই জীবনের সবকিছু নয়। পরের দিন আবার কিনুন। ওটা ভালো না হলে পরের দিন আবার কিনুন। এবং এভাবে কিনতেই থাকুন। একদিন না একদিন ভালো তরমুজ আপনি কিনতে পারবেনই পারবেন। হ্যাঁ, অবশ্যই পারবেন। কারণ, তরমুজ বিক্রেতা ভাই বলেছেন, ‘বিশ্বাস রাখেন।’ আর কে না জানেন, বিশ্বাসে মিলায় বস্তু।

পাঠকের মতামত:

লাইফ স্টাইল এর সর্বশেষ খবর

লাইফ স্টাইল - এর সব খবর



রে