ঢাকা, সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

কোহলির পরামর্শেই বদলে গেছে ব্যাটিং: বাবর আজম

২০২১ এপ্রিল ১৬ ২২:৪৩:১৩
কোহলির পরামর্শেই বদলে গেছে ব্যাটিং: বাবর আজম

বিরাট কোহলিকে বলা হয় বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। তার সাথে অনেকে তুলনা করেন পাকিস্তানের বাবর আজমকে। কারও কারও চোখে তারা প্রতিদ্বন্দ্বী। তবে বাবর আর কোহলির সম্পর্কটা যতটা প্রতিদ্বন্দ্বিতার, তার চেয়েও বেশি সহযোগিতার।

একজন বিশ্ব ক্রিকেটে ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় বর্তমান ক্রিকেটার, আরেকজন পাকিস্তানের ঝাণ্ডা উড়াচ্ছেন বিশ্ব মঞ্চে। দুইজনই আবার নিজ নিজ দেশের জাতীয় দলের অধিনায়ক। কোহলি আর বাবরের মাঝে তুলনার রেখা টানার অনেক সুযোগ আছে। তবে সেই রেখা ভেদ করে কীভাবে একে অপরের সাথে সহযোগিতার সেতুতে মিলিত হয়েছেন, সেই কথা জানালেন খোদ বাবর।

সম্প্রতি ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় কোহলিকে হটিয়ে বাবর দখল করেছেন শীর্ষস্থান। এতে অনেকে নতুন করে তুলে ধরেছেন বাবরের সাথে কোহলির প্রতিদ্বন্দ্বিতা। তবে বাবর বিনয়ের সাথে মনে করিয়ে দিলেন, তার ব্যাটিংয়ে উন্নতিতে অবদান আছে কোহলিরই।

বাবরের ভাষায়, ‘আগে আমি নেটে কম গুরুত্ব দিয়ে ব্যাটিং অনুশীলন করতাম। তবে ধীরে ধীরে এটা কাটিয়ে উঠেছি। বুঝতে পেরেছি, যদি নেট সেশনকে গুরুত্বের সাথে না নেই তাহলে ম্যাচে কীভাবে পারফর্ম করব?’

বাবরকে কোহলিই বলেছিলেন, তিনি যেন নেট সেশনকেও ম্যাচের সমান গুরুত্ব দেন। বাবর বলেন, ‘এই ভাবনা থেকে একদিন কোহলির সাথে আলাপ করি। সে আমাকে জানান, নেট সেশনকে ঠিক ততটাই গুরুত্বের সাথে নিতে হবে যতটা গুরুত্বের সাথে নেওয়া হয় একটা ম্যাচকে। নেটে তুমি যদি আউট হয়ে যাও, ভুলভাল শট খেলো তাহলে ম্যাচে এসে ব্যাটিংয়ে নেমেও একই কাজ করতে থাকবে।’

সাধারণত ম্যাচে ব্যাট জ্বলে না উঠলে অস্বস্তি হয় ক্রিকেটারদের। কোহলির কথায় বাবর এতটাই বদলে গেছেন যে, নেট সেশন ভালো না গেলেও স্বস্তি পান না তিনি। বাবর বলেন, ‘তার এই পরামর্শ আমার অনেক কাজে লেগেছে। এখন আমি নেটে ব্যাটিং করে সন্তুষ্ট হই না। নেট সেশন ভালো না হলে সারা দিনই যেন অস্বস্তি হয়।’

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে