ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

ভারতীয় ক্রিকেটারকে মিথ্যাচার করলেন পাকিস্তানি ওপেনার

২০২১ মে ১০ ১৫:৩৯:২০
ভারতীয় ক্রিকেটারকে মিথ্যাচার করলেন পাকিস্তানি ওপেনার

জাতীয় দলে সুযোগ পেতে হলে অবিশ্বাস্য কিছু করে দেখাতে হয় তা না হলে কোনো ক্রিকেটারকে জায়গা দেওয়া হয় না।

ৃপাকিস্তানের একশর বেশি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমাতে চাইছেন বলে পিসিবিকে সতর্কবার্তা দিয়েছেন দেশটির একসময়ের ওপেনার সামি আসলাম।

গত বছর ক্রিকেটে পাকিস্তান দলে ঠাঁই না পেয়ে রাগে-ক্ষোভে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান দেশটির ঘরোয়া লিগের এই দুর্দান্ত পারফরমার, যা ছিল সেই সময়ের আলোচিত ঘটনা।

এক বছর পর পাক প্যাশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানালেন, যুক্তরাষ্ট্রে ভালোই ক্রিকেট খেলছেন তিনি। এখন তার মতোই পাকিস্তানের আরও ১০০ ক্রিকেটার যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমাতে চান। ওই ১০০ জনের সঙ্গে আসলাম ভারতেরও কয়েকজনের নাম বলেন।

তারা হলেন— ভারতের তিন সাবেক অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটার উন্মুক্ত চাঁদ, হারমিত সিং ও স্মিত প্যাটেল।

তবে সামি আসলামের এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন উন্মুক্ত চাঁদ। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এই পাক ওপেনার মিথ্যাচার করেছেন বলে দাবি করেছেন তিনি।

অবশ্য সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণ করে এসেছেন চাঁদ। সেই প্রসঙ্গ টেনেই চাঁদের যুক্তরাষ্ট্রে থিতু হওয়ার পরিকল্পনার কথা জানান সামি আসলাম।

সামি মিথ্যাচার করছেন উল্লেখ করে সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চাঁদ বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলাম তা সত্য। কিন্তু সেটি ছিল আত্মীয়ের সঙ্গে দেখা করতে। সেখানে ক্রিকেটে ক্যারিয়ার গড়তে নয়। সেখানে এক-দুদিন ক্রিকেট খেলেছি স্রেফ অনুশীলনের জন্যই। এটি আমার অবসর যাপনের একটা ভ্রমণ ছিল মাত্র। আমেরিকার ক্রিকেটে নাম লেখানোর মতো কিছুই হয়নি সেখানে।’

উল্লেখ্য, ঘরোয়া লিগে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেও জাতীয় দলে ডাক না পাওয়ায় হতাশ হয়ে গত বছর যুক্তরাষ্ট্র চলে যান ২৫ বছর বয়সি ওপেনার সামি আসলাম।

সেই সময় পাকিস্তানের কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে সাউদার্ন পাঞ্জাবের নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি চার সেঞ্চুরি আর ৭৮ গড়ে ৮৬৪ রান করে টুর্নামেন্টে চতুর্থ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন।

আর সেই মৌসুমেই তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয় দলটির হেড কোচ আবদুল রেহমান।

এর পরও জাতীয় দলে ফেরার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন সামি। কিন্তু এর পর নিউজিল্যান্ড সফরে ৩৫ জনের দলেও জায়গা না পেয়ে তার সেই স্বপ্ন ভেঙে যায়।

দলের ওপেনিংয়ে আবিদ আলি আর শান মাসুদের জায়গা হলেও ব্যাকআপ অপশন হিসেবেও বেছে নেওয়া হয়নি তাকে।

এতে রাগে-ক্ষোভে ও হতাশ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান সামি আসলাম।

প্রসঙ্গত জাতীয় দলের খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে সামি আসলামের। ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে পাকিস্তানের সাদা জার্সিতে ১৩টি টেস্ট খেলেছেন তিনি। খেলেছেন ৪টি ওয়ানডেও। টেস্টে ৩১-এর ওপর গড় তাকে বলতে গেলে প্রথম পছন্দের ওপেনারই বানিয়ে দিচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎই ছিটকে পড়েন।

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে