ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮

বাংলাদেশের পরবর্তি কোচ হচ্ছেন হাতুরে সিংহে

২০২১ মে ১২ ১০:৪৯:৪৯
বাংলাদেশের পরবর্তি কোচ হচ্ছেন হাতুরে সিংহে

করোনার সমস্যার কারনে এশিয়ার দিকে বিদেশী কোচ পাওয়া সমস্যাই বলা চলে। আর তাই বিদেশী কোচের সমস্যার কারনেই আপাতত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের হেড কোচের দায়িত্বে বহাল থেকে যাচ্ছে রাসেল ডমিঙ্গো।

যদিও তার চুক্তি শেষ হওয়ার কথা আগষ্টের দিকে তবে এরপর শুরু হবে টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ। তাই ঠিক বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে কোচ ছাটাই করা হয়ে যাবে দলের জন্য এক বিশাল ঝুকি। আর তাই বোধহয় সে পথে হাটবে না বিসিবি। ঠিক একারনেই হয়ত থেকে যাচ্ছেন রাসেল ডমিঙ্গো বাংলাদেশের হেড কোচ হিসেবে।

একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়ে যাচ্ছে রাসেল ডমিঙ্গো। না, তিনি অনৈতিক বা অদ্ভুত কোন কাজ করে নি। কিন্তু তিনি একের পর এক অদ্ভুত অদ্ভুত সাক্ষাৎকার দিয়ে জন্ম দিচ্ছেন বিতর্কের। যাতে সমালোচনা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোয় আর তাতে তার প্রতি বিরক্ত হচ্ছে বোর্ডের কর্তারা।

আর ঠিক এই কারনেই দুরত্ব বেড়েছে বিসিবির সাথে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হেড কোচের। সে কারনেই গুঞ্জন উঠেছে তাকে ছাটাইয়ের। কে হতে পারে সম্ভাব্য তার উত্তরসূরি? সেই প্রশ্নের উত্তর মেলে নি, তবে অনুমান করা হচ্ছে বিসিবি চায় তার বদলে সাবেক হেড কোচ চন্ডিকা হাতুরেসিং কে আনতে। যিনি বর্তমানে রয়েছে নিউ সাউথ ওয়েলসের ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে।

অবশ্য এই কোচ বদল নিয়ে কথা বলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য ও সাবেক ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদ সুজন। তিনি জানান দায়িত্ব নিতে হবে আমাদেরও। শুধু কোচ কে ইস্যু করলেই হবে না বরং খেলতে হবে ক্রিকেটারদেরও।

অবশ্য বোর্ডের কর্তা সুজনের বর্তমান কোচের পক্ষে সাফাই গাওয়ারও কিছু কারন রয়েছে।বাংলাদেশ বোর্ডের ঘন ঘন কোচ চেঞ্জের দুর্নাম রয়েছে, তাই এই পথ থেকে বেরিয়ে আসতে চাওয়া হচ্ছে মূল কারন এখনই কোচ না বদলের।

এটা ছাড়া আরও বড় কারন হচ্ছে এই মুহূর্তে তার কোন বিকল্প পাচ্ছে না বোর্ড। যেই হাতুরুর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করছে বোর্ড, তাকেও পাওয়া যাবে না ২০২২ এর আগে কারন তিনি এতদিন চুক্তিবদ্ধ নিউ সাউথ ওয়েলসের সাথে।

এই দুই কারন ছাড়া আরেকটি কারন হচ্ছে বর্তমান পরিস্থিতি। করোনার কারনে বোর্ড চাইলেও ভালো মানের বিদেশী কোচ এনে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব দিতে পারছে না তাই বাধ্য হয়ে বহাল রাখতেই হচ্ছে রাসেল ডমিঙ্গো কে।

এখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সামনে আপাত দৃষ্টি তে পথ খোলা রয়েছে একটিই। তা হল আসন্ন টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলোয়ারদের থেকে ভালো কিছু পাওয়া এবং তাতে করে রাসেল ডমিঙ্গোর সাথে চুক্তি বাড়িয়ে নেয়া। এটাই এখন বাংলাদেশ বোর্ড ও দলের জন্য একমাত্র সমাধান।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে