ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮

বাংলাদেশের ধনী ১০ ক্রিকেটার

২০২১ জুন ০৯ ১০:৩৭:১৭
বাংলাদেশের ধনী ১০ ক্রিকেটার

দেশের সেরা ১০ ধনী ক্রিকেটারের নাম ও সম্পদের পরিমান।শুরুতেই আসি শাহরিয়ান নাফিসের কাছে। দেশ সেরা এক সময়ের সেরা এই ওপেনার যদিও ক্যারিয়ারের শেষ দিকে ব্যর্থতায় নিজেকে হারিয়ে খুজেছে বারবার। বর্তমানে আছেন বিসিবির এক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে। সম্পদের দিক দিয়েই আছে সেরাদের অন্যতম সেরা স্থানে।

বিজ্ঞাপন,খেলাধুলা,বিসিবির চাকরি এবং নিজস্ব ব্যবসার কল্যাণে তিনি জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে সেরা ১০ ধনীর তালিকায় এবং শীর্ষ ধনী ক্রিকেটারের তালিকায় তার নাম রয়েছে ১০ নম্বরে। তার সম্পত্তির পরিমান দেখানো হচ্ছে ১৪ কোটি টাকা!

এই তালিকায় শাহরিয়ান নাফিসের উপরেই রয়েছেন। এক সময়ের বাংলাদেশ জাতীয় দলের নিয়মিত মুখ অলোক কপালী! এক সময় দেশের জার্সিতে প্রায় নিয়মিতই খেলতেন। তবে অলোক কপালির কপালটাই সাড়া দেয়নি বেশিদিন।

অফ ফর্মের কারণে জাতীয় দল থেকে ছিটকে গেলেও অবশ্য এখনো ঘরোয়া লীগের নিয়মিত পারফর্মার তিনি।এছাড়াও নিজস্ব ব্যবসা আছে তার আর সেই কল্যাণে তিনি আছেন দেশের শীর্ষ ধনী ক্রিকেটারের তালিকায় ৯ নম্বরে। আর তার সম্পত্তির পরিমান প্রায় ১৫.৫ কোটি টাকা!

এই তালিকায় ৮নম্বরে আছেন বর্তমানের অন্যতম সেরা বোলার স্পীড স্টার হিসেবে পরিচিত তাসকিন আহমেদের নাম! খেলায় শেষ কয়েক বছর নিয়মিত হতে না পারলেও এই সুদর্শন ক্রিকেটার একের পর এক বিজ্ঞাপনে কাজ করেই গেছে। তাই তার সঞ্চয়ের পরিমানটাও হিংসে হওয়ার মতোই। অল্পদিনের ক্রিকেট জীবনে তার সম্পত্তির পরিমান ১৭ কোটি টাকা!

বয়সটা বেশি না। বেশি না শরীরের ওজনটাও তবে সল্প সময়ের ক্যারিয়ারেই টাকার ওজনটা ঠিকই সমৃদ্ধ করে নিয়েছেন মুস্তাফিজুর। বোলিংয়ে একের পর এক কাটার উইকেটের সাথে সাথে পরিমান বাড়িয়েছে টাকার!

বিশ্ব ক্রিকেট বাজারে মুস্তাফিজুর এর দাম খুব কড়া! সদ্য আইপিএলেই এক কোটিতে ফিজকে কিনলো তারা! তাইতো দেশের শীর্ষ ধনী ক্রিকেটারের তালিকায় নাম লেখাতে সময় নিতে হয়নি ফিজের। ১৯ কোটি টাকা আয়ের মাধ্যমে তালিকার ৭ নম্বর স্থানটি ধরে রেখেছেন তিনি।

আব্দুর রাজ্জাক। দেশের নয় বিশ্ব ক্রিকেটের বিস্ময় ছিলো একসময়। টাইগারদের হয়ে সর্ব প্রথম ২০০ উইকেট শিকারী এই বোলার বর্তমানে আছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের নির্বাচক হিসেবে।

খেলার ক্যারিয়ার শেষে নিজের সম্পত্তিরও বিশাল পাহাড় গড়তে সক্ষম হয়েছেন তিনি। ব্যাক্তিগত ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের মালিক তিনি। যা টাকার পরিমানে ৮৪ কোটি টাকা! আর তিনি আছেন এই তালিকার ৬ নম্বরে।

দেশের ক্রিকেটে কোনো তালিকা করা হবে, আর সেখানে থাকবেন না টাইগার শিবিরের সর্বকালের সেরা দলপতি! তাকি হয়? মিস্টার ক্যাপ্টেন হ্যান্ডসাম আছেন এই তালিকার ৫ নম্বরে।

খেলা থেকে অবসরে না গেলেও বর্তমানে তিনি আছেন নড়াইলের সংসদ সদস্য হিসেবে। খেলাধুলা, ব্যবসা, এবং বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে তার সম্পত্তির পরিমান শত কোটি ছুই ছুই। প্রায় ৯৬ কোটি টাকার মালিক তিনি!

দেশের লাল সবুজ ঐ জার্সিটি সর্বপ্রথম সবচেয়ে ঝলমলে আলো ছড়াচ্ছিলো যার গায়ে! তার নাম মোহাম্মদ আশরাফুল। যাকে নিয়ে আজও ভক্তদের আগ্রহের নেই কুল! ফিক্সিং এর দায়ে ক্রিকেট থেকে বাদ পরার পর ফিরে এসে অনেক খুজলেও ফিরে পাচ্ছেন না নিজেকে।১৩০ কোটি টাকার মালিক তিনি! তিনি আছেন তালিকার ৪ নম্বরে।

পরিশ্রমই সৌভাগ্যের চাবিকাঠি, আর মুশফিক ই এই কথার সত্যতার মাফকাঠি। ক্যারিয়ারের শুরুতে ধুকতে থাকা মুশফিকই আজকের মিস্টার ডিপেন্ডেবল। আর মিস্টার ডিপেন্ডবল মুশফিকুর রহমান আছেন এই তালিকায় ৩য় স্থানে। বিভিন্ন পন্যের বিজ্ঞাপন আর শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করেন তিনি। তার সম্পদের পরিমান প্রায় ১৪০ কোটি টাকা!

খান পরিবারের খান সাহেবকে ক্রিকেট পরিবারের ক্রিকেটার বললে কি ভুল হবে? মোটেও না! চাচা আকরাম খান এবং বড় ভাই নাফিজ ইকবালের পর সেই ঘর থেকেই উঠে এসেছেন দেশ সেরা ওপেনার ও ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল খান।

তার সম্পদের হিসেবে তিনি আছেন দুই নম্বর স্থানে! তার সম্পদের পরিমান প্রায় দুইশত কোটি টাকা! তাই শীর্ষ ধনীদের তালিকায় সাকিবের পরই আছে তামিম ইকবাল।

বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার। দেশের হয়ে প্রায় সব তালিকায় ই নিজেকে রেখেছেন শীর্ষে। তাই দেশের ক্রিকেটে শীর্ষ ধনীদের তালিকায়ও তার ব্যাতিক্রম কিছু না। প্রায় ২৭৫ কোটি টাকার মালিক তিনি। যদিও অনেকেরই ধারণা তার এই টাকার পরিমান আরো বেশি।

আইপিএল,পিসিএল,সিপিএল,বিবিএলসহ পৃথিবীর প্রায় সব লীগেই খেলে বেড়ান তিনি। তাছাড়াও বিজ্ঞাপন এবং বিভিন্ন ব্যবসার মাধ্যমে তিনি টাকা উপার্জন করে থাকেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ এখানে উল্ল্যেখিত তথ্যগুলো বিভিন্ন অনলাইন সূত্র থেকে নেয়া, শতভাগ সম্পদের পরিমাণ এর থেকে ভিন্ন ও হতে পারে।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে