ঢাকা, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

আবারও মাঝমাঠ থেকে চোখ ধাঁধানো গোল দেখলো ফুটবল বিশ্ব

২০২১ জুন ১৪ ২১:১৮:৩২
আবারও মাঝমাঠ থেকে চোখ ধাঁধানো গোল দেখলো ফুটবল বিশ্ব

এই ধরনের গোল হয়তে বহু অপেক্ষার পর দেখতে পাওয়া। যায় তেমনি একটি গেলো দেখলো আজ ফুটবল বিশ্ব। আক্রমণের পর আক্রমণ, সুযোগের পর সুযোগ। কিন্তু প্রতিপক্ষ গোলকিপার ও ভাগ্য সহায় হলো না। ফুটবদেবতা স্কটল্যান্ডের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে দুহাত ভরে দিলেন পাত্রিক শিখ নামের বছর পঁচিশের এক তরুণকে।

যার সৌজন্যে ফুটবল বিশ্বের চোখ জুড়ালো অসাধারণ এক গোলে। মাঝমাঠ থেকে উড়ে মারা বলে জাল খুঁজে পাওয়ার আগের শিখ গোল পেয়েছিলেন আরেকটি। তার জোড়া লক্ষ্যভেদেই চেক প্রজাতন্ত্র ইউরো অভিযান শুরু করেছে স্কটিশদের ২-০ গোলে হারিয়ে।

গ্লাসগোর হ্যাম্পডেন পার্কে স্কটল্যান্ড নেমেছিল নিজেদের সমর্থকদের সামনে। ঘরের মাঠে দর্শকদের অনুপ্রেরণায় একের পর এক আক্রমণ চালিয়ে চেক প্রজাতন্ত্রের রক্ষণ কাঁপিয়ে দিলো তারা।

তবে সুন্দর ফুটবলের ফুল ফুটিয়ে জয়ের হাসি হাসলো চেকরা। দলবেঁধে আক্রমণে ওঠার সঙ্গে বুদ্ধিদীপ্ত ফুটবলে দারুণ একটি টুর্নামেন্টের ইঙ্গিত তারা দিলো গ্লাসগোর ম্যাচে।

যে ম্যাচের সবটুকু আলো নিজের ওপর ফেললেন শিখ। বেয়ার লেভারকুসেনের এই ফরোয়ার্ড সেভাবে হয়তো আলোচনায় ছিলেন না। থাকার কথাও নয়। তবে স্কটল্যান্ড ম্যাচের একটি গোলে এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।

ইউরোর মতো বড় মঞ্চে মাঝমাঠ থেকে গোল করা, তাকে নিয়ে কথা তো হবেই! ৫০ গজ দূর থেকে তার উড়িয়ে মারা বলের জালে জড়ানোর দৃশ্যটা বহুদিন চোখে লেগে থাকবে ফুটবলপ্রেমীদের।

দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটের খেলা চলছিল তখন। স্কটিশ ডিফেন্ডার জ্যাক হেন্ড্রির শট প্রতিহত করেন এক চেক খেলোয়াড়। তার কাছ থেকে বল পেয়ে যান শিখ। মাঝমাঠে বল নিয়ে সামান্য এগোতেই দেখলেন স্কটল্যান্ডের গোলকিপার অনেকটা এগিয়ে। বুঝলেন এটাই সুযোগ।

৫০ গজ দূর থেকে বাঁ পায়ের ভাসানো শটে মারলেন ত্রেকাঠি লক্ষ্য করে। উড়তে উড়তে বল জড়িয়ে যায় জালে। স্কটিশ গোলকিপার অনেকটা দৌড়ে চেষ্টা করলেন বল ঠেকানোর, কিন্তু বল তার মাথার ওপর দিয়ে খুঁজে নেয় জাল।

চমৎকার গোলটির আগে বিরতিতে যাওয়ার আগে এই শিখের লক্ষ্যভেদেই লিড নিয়েছিল চেক ‍প্রজাতন্ত্র। ৪২ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে ভ্লাদিমির কোউফালের বাড়ানো চমৎকার ক্রস লাফিয়ে উঠে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন শিখ।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে