ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

টি-২০তে গেইলের ১৭৫ ও টেস্টে ব্রায়ান লারার ৪০০ রানের রেকর্ড ভাঙতে পারে যে ৩ ব্যাটসম্যান জানালেন তারা দুজন নিজেই

২০২১ জুলাই ১৮ ১২:৩৬:৫৩
টি-২০তে গেইলের ১৭৫ ও টেস্টে ব্রায়ান লারার ৪০০ রানের রেকর্ড ভাঙতে পারে যে ৩ ব্যাটসম্যান জানালেন তারা দুজন নিজেই

টেস্টে ৪০০ রানের রেকর্ড ভাঙতে পারেন এমন তিনজন ব্যাটসম্যানের নাম বলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান ব্রায়ান লারা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট আবির্ভাবের পর থেকেই ব্যাটসম্যানদের মানসিকতা পুরোপুরি বদলে গিয়েছে। এখানে কেবল চার ও ছক্কার বৃষ্টি দেখা যায়। এখন সীমিত ওভারের ক্রিকেটেও ব্যাটসম্যানরা ধীরে ধীরে বড় ইনিংস খেলছেন

এমনকি সেঞ্চুরি করাটাও অভ্যাস করে ফেলেছেন। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের প্রসঙ্গ উঠলে ক্রিস গেইলের কথা বলতেই হয় কারণ তিনি এই সীমিত ওভারের ফরম্যাটে অজস্র রেকর্ডের ইমারত গড়েছেন। ২০১৩ সালে তিনি টি-টোয়েন্টির ইতিহাসের সবচেয়ে বড় রানের ইনিংস খেলতে তিনি সক্ষম হয়েছিলেন।

২০১৩ সালে আইপিএলে ক্রিস গেইল আরসিবির হয়ে খেলার সময় পুনে ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ১৭৫ রান করেন। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসের এটাই সবচেয়ে বড় ইনিংস, যা আজ পর্যন্ত কেউ ভাঙতে পারনি, কিন্তু এমন ৩ জন ব্যাটসম্যান রয়েছেন যারা গেইলের রেকর্ডটি ভাঙতে পারেন। টি-টোয়েন্টিতে ক্রিস গেইলের ১৭৫ রানের রেকর্ডটি ভাঙতে পারেন যে তিন ব্যাটসম্যান:

১) রোহিত শর্মা: বিশ্বের দুর্ধর্ষ ব্যাটসম্যানদের তালিকায় রয়েছেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে রোহিতের বিশেষ প্রভাব রয়েছে। এখনও পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বাধিক চারটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। রোহিত শর্মা এমন একজন ব্যাটসম্যান বিশ্বের যে কোনও বোলিং আক্রমণ উড়িয়ে দিতে পারেন। এই ভারতীয় ‘হিটম্যান’ ক্রিস গেইলের ১৭৫ রানের রেকর্ডটি ছাড়িয়ে যেতে পারেন।

২) ডেভিড ওয়ার্নার: অস্ট্রেলিয়ার বিধ্বংসী ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার তার ব্যাটিং দিয়ে অনেক রেকর্ড অর্জন করেছেন। ডেভিড ওয়ার্নার এখনও পর্যন্ত ক্রিকেটের তিনটি ফর্ম্যাটেই তার দক্ষতা দেখিয়েছেন, তবে তার আক্রমণাত্মক ব্যাটিং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও বড় প্রভাব ফেলেছে। তিনি এই ফর্ম্যাটটি খুব বেশি পছন্দ করেন। বিশ্বজুড়ে বেশ কয়েকটি টি-২০ লিগের সাথে যুক্ত। তার নামে অনেক বড় বড় ইনিংস রয়েছে এবং ক্রিস গেইলের ১৭৫ রানের রেকর্ডটি ভাঙার পূর্ণ সুযোগ রয়েছে তাঁরও।

৩) জনি বেয়ারস্টো: গত কয়েক বছরে ইংল্যান্ড দলে বেশ কয়েকজন বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান এসেছেন। এর মধ্যে উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টোকে উপেক্ষা করা যায় না, যিনি একজন দুর্দান্ত ও বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে প্রায়ই ১৪০ এর কাছাকাছি স্ট্রাইকরেট রয়েছে।

বেয়ারস্টো ইংল্যান্ডের হয়ে এখনও পর্যন্ত ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টিতে বেশ কয়েকটি চমকপ্রদ ইনিংস খেলেছেন। তাঁর ব্যাটিং শৈলী খুব আক্রমণাত্মক, খুব কম বলে যতটা সম্ভব রান করার ক্ষমতা রয়েছে। সুতরাং জনি বেয়ারস্টোও কোনদিন ক্রিস গেইলের ১৭৫ রানের রেকর্ডটি ছাপিয়ে যেতে পারেন।

২০০৪ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্টে ৪০০ রান করেছিলেন লারা। এই রেকর্ড এখনও অক্ষত রয়েছে। ব্রায়ান লারার মতে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল আয়োজিত সমস্ত প্রতিযোগিতাতেই জেতার ক্ষমতা রয়েছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতের।

টেস্টে ব্যক্তিগত সর্বাধিক ৪০০ রানের রেকর্ড গড়ের লারা। তার সেই রেকর্ড শেষ পর্যন্ত কে ভাঙবেন? এ বিষয়ে ত্রিনিদাদের রাজপুত্র ব্রায়ান লারা বলেন,

“অস্ট্রেলিয়ার হয়ে চার নম্বরে নামা স্টিভ স্মিথের পক্ষে এই রেকর্ড ভাঙা কঠিন। ও গ্রেট ব্যাটসম্যান, কিন্তু শাসন করতে পারে না। বরং ডেভিড ওয়ার্নার ভাঙতে পারে।

বিরাট কোহলি উপরের দিকে নেমে উইকেটে একবার থিতু হয়ে গেলে তার পক্ষে এটা সম্ভব। কোহলি আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যানও। রোহিত শর্মাও নিজের দিনে এটা পারে। এই রেকর্ড ভাঙার মতো বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার রয়েছে।”

অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেই প্রতিযোগিতার দিকে এখন থেকেই অধীর আগ্রহে তাকিয়ে রয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

২০১৩ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর ভারত বিশ্বপর্যায়ের কোনও প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়নি। আইসিসির নানা প্রতিযোগিতায় ফাইনালে ও সেমিফাইনালে উঠলেও শেষ হাসি হাসতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া।

এ বিষয়ে লারা বলেন,

“আমার তো মনে হয় যে কোনও প্রতিযোগিতাই জেতার ক্ষমতা রাখে ভারতীয় ক্রিকেট দল। বিরাট কোহলিদের এখন টার্গেট করছে সব দল। এটার জন্য প্রশংসা প্রাপ্য ওদের। প্রত্যেক দলই জানে যে কখনও না কখনও ভারতের মুখোমুখি হতেই হবে।”

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে