ঢাকা, বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮

বাংলাদেশ ক্রিকেটের ১৫ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিয়ে নতুন ইতিহাস লিখলো নাইম-সৌম্য

২০২১ জুলাই ২৩ ১২:০৯:১২
বাংলাদেশ ক্রিকেটের ১৫ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিয়ে নতুন ইতিহাস লিখলো নাইম-সৌম্য

জিম্বাবুয়ের ইনিংসের শুরুর দিকে কভারে ফিল্ডিং করতে গিয়ে ডান পায়ে চোট পান লিটন দাস। যার ফলে ইনিংসের বাকি সময় তার জায়গায় ফিল্ডিং করেন শামীম পাটোয়ারি। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের ইনিংসে ব্যাটিংয়েও নামতে পারেননি লিটন।

তার অনুপস্থিতিতে নাইম শেখের সঙ্গে ইনিংস সূচনার দায়িত্ব বর্তায় সৌম্য সরকারের কাঁধে। আর এ দুজন মিলে দলকে এনে দিয়েছেন ম্যাচ জেতানো উদ্বোধনী জুটি, গড়েছেন রেকর্ড।

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটি ছিল বাংলাদেশের একশতম কুড়ি ওভারের ম্যাচ। প্রায় ১৫ বছরের যাত্রায় টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সেঞ্চুরি করল বাংলাদেশ।

তিন পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, শরিফুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমানের তোপের পর দুই ওপেনার সৌম্য সরকার ও নাইম শেখের ফিফটিতে ভর করে ৮ উইকেটের দাপুটে জয়ই পেয়েছে বাংলাদেশ।

আর এ ম্যাচ জেতানোর পথে উদ্বোধনী জুটিতে ১৩.১ ওভারে ১০২ রান যোগ করেছেন নাইম ও সৌম্য। বাংলাদেশের ১৫ বছর ও ১০০ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে উদ্বোধনী জুটিতে এটিই প্রথম শতরানের জুটির রেকর্ড।

আগের ১৫ বছর ও ৯৯ ম্যাচে মোট ২৩টি ভিন্ন জুটি বাংলাদেশের হয়ে ইনিংস সূচনা করেছে। যেখানে সর্বোচ্চ ৯২ রানের রেকর্ড ছিল তামিম ইকবাল ও লিটন দাসের। সবমিলিয়ে ওপেনিংয়ে পঞ্চাশ পেরুনো জুটির দেখা মিলেছে ১১ বার।

এবার আগের সব রেকর্ড ছাপিয়ে ১৫ বছর প্রথম জুটি হিসেবে ওপেনিংয়ে শতরান যোগ করলেন নাইম-সৌম্য। সবমিলিয়ে যেকোনো উইকেটে বাংলাদেশের এটি পঞ্চম শতরানের জুটি। আর বলের হিসেবে তৃতীয় সর্বোচ্চ বল খেলা জুটি এটি।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে