ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮

বাংলাদেশের টি-২০ ক্রিকেট ইতিহাসকে বদলে দিয়ে নতুন ইতিহাস লিখলো টাইগাররা

২০২১ আগস্ট ০৩ ২২:২৪:২১
বাংলাদেশের টি-২০ ক্রিকেট ইতিহাসকে বদলে দিয়ে নতুন ইতিহাস লিখলো টাইগাররা

আজ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ম্যাচ অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ। অজিদের ২৩ রানে হারিয়ে ১-০ তে এগিয়ে গেল মাহমুদউল্লাহর দল। এরই সাথে টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়াকে হারালো টাইগাররা।

মিরপুরে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩১ রানের পুঁজি গড়ে বাংলাদেশ। জবাবে ১০৮ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। এই জয়ে সর্বনিম্ন রান করেও টি-টোয়েন্টিতে জয়ের রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। এর আগে ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৩৪ রান করেও আরব আমিরাতের বিপক্ষে জয় ছিল টাইগারদের সবচেয়ে কম রানে ডিফেন্ড করার রেকর্ড।

রান তাড়া করতে নেমে ইনিংসের প্রথম বলেই ওপেনার অ্যালেক্স ক্যারিকে (০) বোল্ড করে ফিরিয়ে দেন স্পিনার মেহেদি হাসান। নাসুম আহমেদ পরের ওভারে ফিরিয়ে দেন আরেক ওপেনার জশ ফিলিপিকে (৯)।

তৃতীয় ওভারে আক্রমণে এসেই সাকিব আল হাসান বোল্ড করেন ময়জেস হেনরিকসকে (১)। ফলে ২.১ ওভারেই মাত্র ১১ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া। পরবর্তীতে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন ম্যাথু ওয়েড ও মিচেল মার্শ। কিন্তু সেই জুটিকে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি নাসুম আহমেদ। ম্যাথু ওয়েডকে ১৩ রানে ফেরত পাঠান তিনি।

পরবর্তীতে অ্যাশটন আগার ব্যাটিংয়ে নেমে সেট হওয়ার আগেই হিট উইকেট হয়ে ফিরে যান। অজিদের হয়ে একাই লড়াই করা মিচেল মার্শকে ৪৫ রানে ফিরিয়ে দিয়ে ম্যাচ নিজেদের হাতে মুঠে নেন নাসুম। এরপর আর অজিদের হয়ে তেমন কেউই দাঁড়াতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত হার মেনেই মাঠ ছাড়তে হয় অজিদের।

বাংলাদেশের হয়ে ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ১৯ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন নাসুম আহমেদ। এছাড়াও মোস্তাফিজ ও শরিফুল নেন ২ টি করে উইকেট।

এর আগে মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেছিল বাংলাদেশ। নির্ধারিত ২০ ওভারে যারা ৭ উইকেটে ১৩১ রানের পুঁজি গড়ে।

সর্বোচ্চ ৩৬ রান এসেছে সাকিব আল হাসানের ব্যাট থেকে। ৩৩ বলে ৩ চারে এই রান করেন তিনি। ওপেনার নাঈম ২৯ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় করেন ৩০ রান। এ ছাড়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২০ বলে ২০, আফিফ হোসেন ধ্রুব ১৭ বলে ২৩ রান করেন।

ইনিংসের দ্বিতীয় বলে নাঈমের ওই ছক্কায় শুরুটা ছাড়া বাংলাদেশের ব্যাটিং দেখে টি-টোয়েন্টির আমেজ পাওয়া গেছে কমই। পাওয়ার প্লেতে ১ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৩৩ রান তুলতে পেরেছিল স্বাগতিকেরা। ৩৬ বলের মধ্যে ২৩টিই ছিল ডট বল।

১০ ওভার শেষে স্কোর ছিল ২ উইকেটে ৫৮। পরে আর রানের গতি বাড়াতে পারেনি টাইগাররা। তাই দেড় শও হয়নি স্বাগতিকদের দলীয় স্কোর। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ৩ উইকেট নিয়ে সবচেয়ে সফল জস হ্যাজলউড। মিচেল স্টার্ক নিয়েছে ২ উইকেট। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন অ্যাডাম জাম্পা ও আন্দ্রে টাই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ : ১৩১/৭ (২০ ওভার)সাকিব ৩৬, নাঈম ৩০, আফিফ ২৩, রিয়াদ ২০হ্যাজলউড ২৪/৩, স্টার্ক ৩৩/২ জাম্পা ২৮/১

অস্ট্রেলিয়া: ১০৮/১০ (২০ ওভার)মার্শ ৪৫, ওয়েড ১৪নাসুম ৪/১৯, মোস্তাফিজ ২/১৬ শরিফুল ২/১৯।

বাংলাদেশ ২৩ রানে জয়ী।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে