ঢাকা, রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

বাংলাদেশ দলে দুই বিশ্বকাপজয়ীর টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবনা

২০২১ সেপ্টেম্বর ২০ ২১:৩৬:০৪
বাংলাদেশ দলে দুই বিশ্বকাপজয়ীর টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবনা

এবার বাংলাদেশের টি -টোয়েন্টি দল দুই বিশ্ব চ্যাম্পিয়নকে নিয়ে টি -টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছে। অনূর্ধ্ব -১৯ এর শামীম হুসেইন পাটোয়ারী এবং শরিফুল ইসলাম বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপ জিতেছেন। দুজনেই এবার জাতীয় দলের টি -টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে। বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শামীম হুসেইন বলেছেন, তিনি সত্যিই বিশ্বকাপে ভালো করার জন্য মুখিয়ে আছেন।

জিম্বাবুয়ে, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টানা তিনটি সিরিজ খেলার পর ক্লান্ত ক্রিকেটাররা দীর্ঘ ছুটিতে আছেন। বিশ্বকাপ খেলতে অক্টোবরের শুরুতে ক্রিকেটারদের দেশ ছাড়ার কথা। তার আগে কোন ম্যাচ বা অনুশীলন নেই। যাইহোক, সবাই কিন্তু ছুটি কাটাচ্ছে না। মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম প্রচুর ঘাম ঝরাচ্ছেন অনেকেই। শামীম হোসেন পাটোয়ারী তাদের একজন।

এই বিকল্প অনুশীলনের মাঝে, ২১ বছর বয়সী সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের তার আশাবাদী গল্প বলেছিলেন। তিনি বলেন, "কারণ আমরা বিশ্বকাপ জিতেছি, এবারের আসল বিশ্বকাপ, তাই আশা করি আমরা আরও ভালো কিছু নিয়ে আসতে পারব।"

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ আর জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মধ্যে বেশ পার্থক্যই থাকবে। শামীম নিজেও জানেন সেই কথা। তবে বয়সভিত্তিক দলের ওই বিশ্বকাপও খেলেছেন দেশের হয়ে, এবারও তাই। এটাই বড় অনুপ্রেরণা তরুণ ক্রিকেটারের, 'বিশ্বকাপের লক্ষ্য বলতে, যেহেতু এবার আমি প্রথমবার সুযোগ পেয়েছি এখনো সেভাবে তেমন কিছু চিন্তা করিনি। আমি টিমের সঙ্গে যেতে পারছি এটাই আমার কাছে বড় কিছু। জুনিয়র হিসেবে দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। ওখানেও আমি দেশের জন্য খেলেছি এখানেও দেশের জন্য খেলছি। আসলে তফাৎ বলতে আমি মনে করি একটু ব্যতিক্রম থাকবে, যেহেতু এটা মূল জাতীয় দল।

জিম্বাবুয়ে সিরিজে অভিষেক হয় শামীমের। সেই সিরিজে ম্যাচ জেতার তার ক্ষমতা প্রশংসিত হয়েছে। কিন্তু তখন অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড ঘরের মাঠে খুব একটা লাভ করতে পারেনি। সিরিজের প্রথম চার ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া করেছে মাত্র ১০ রান। গত নিউজিল্যান্ড সিরিজে তিনি একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন এবং তিনি 2 রান করেছিলেন। তবে এই দুই সিরিজের স্পিনবান্ধব উইকেটে ব্যাট হাতে তাদের কেউই ভালো করতে পারেনি। এদিকে বাংলাদেশের অন্যান্য স্পিনাররা এত ভালো খেলছিল যে স্পিনার অলেন্ডার শামীম বোলিং করার সুযোগ পাননি। তবে বিশ্বকাপের উইকেট হবে ভিন্ন।

আইসিসির ইভেন্ট বলে উইকেট স্পোর্টিং হওয়ারই কথা। শামীম তাকিয়ে আছেন সেই দিকেই, 'উইকেটের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করে। আপনারা দেখেছেন এখানে এবারের উইকেটটা একটু ভিন্ন ছিল। বিশ্বকাপের উইকেটটা কিন্তু ভালো হওয়াটাই স্বাভাবিক। আমাদের সিনিয়র ক্রিকেটাররা আছেন, আমি অনেক আশাবাদী উনারা ওখানে অনেক ভালো করবেন‌। যদি দেখেন, আমাদের মূল ব্যাটসম্যানরা কিন্তু সফল হতে পারেননি এখানে। তো ওখানে সবাই ভালো করবে ইনশাআল্লাহ।'

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে