ঢাকা, রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১ কার্তিক ১৪২৮

মেসির কারণে প্রথম হারের স্বাদ পেল পিএসজি

২০২১ অক্টোবর ০৩ ১৯:২৫:০২
মেসির কারণে প্রথম হারের স্বাদ পেল পিএসজি

প্যারিস সেন্ট জার্মেইন (পিএসজি) লিড দিতে পারত। ম্যাচের আধা ঘণ্টা শেষে ফ্রি কিক পায় তারা। আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসি নিখুঁত ফ্রি কিক নেন, বিপক্ষ গোলরক্ষককে পরাজিত করে। কিন্তু গোল বারটি বাধা হয়ে দাঁড়ায়। যে কারণে কাঙ্ক্ষিত গোল পাওয়া যায়নি।

মেসির ফ্রি কিক বারে লেগে ফিরে আসার দিন ভাগ্য একদমই পাশে ছিলো না পিএসজির। তাই তো দ্বিতীয়ার্ধে বল জালে জড়ালেও, সেটি বাতিল হয়ে যায় অফসাইডের কারণে। দুইবার এমন ভাগ্য বিড়ম্বনার ম্যাচে আর গোল করতে পারেনি পিএসজি। তবে বসে থাকেনি প্রতিপক্ষ রেনে। দুই অর্ধে দুই গোল করে হারিয়ে দিয়েছে তারকাবহুল পিএসজিকে।

স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে নাম লেখানোর পর গোল করেন বা না করেন, পরাজয়ের দেখা অন্তত পেতে হয়নি মেসিকে। আজ (রোববার) ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের ম্যাচে পিএসজির জার্সিতে প্রথম হারও দেখে ফেললেন তিনি। রেনের কাছে পিএসজি হারলো ০-২ ব্যবধানে।

রেনের মাঠে খেলা ম্যাচটিতে অন্তত ১৩ বার গোলের প্রচেষ্টা চালিয়েছে পিএসজি। কিন্তু একটি শটও লক্ষ্যে রাখতে পারেনি তারা। এমনকি বল দখলের লড়াইয়েও এগিয়ে ছিলো মাউরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা। কিন্তু কাজের কাজ গোল করে ম্যাচ জিতে নিয়েছে টেবিলের নিচের দিকের দল রেনে।

ম্যাচের ৩০ মিনিটের সময় ডি-বক্সের বাইরে ফাউলের শিকার হন মেসি, ফ্রি কিকের বাঁশি বাজান রেফারি। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে স্বভাবসুলভ বাঁকানো শট নেন মেসি, পরাস্ত করেন গোলরক্ষককেও। কিন্তু ক্রসবারে লেগে বল যায় বাইরে, গোলবঞ্চিত হন মেসি। এর মিনিটপাঁচেক আগে মেসির পাস থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন এমবাপে।

পিএসজির তারকারা ব্যর্থ হলেও প্রথমার্ধের বিরতির ঠিক আগে লিড নিতে ভুল করেনি রেনে। খেলার ধারার বিপরীতে বাম পাশ দিয়ে আক্রমণে উঠে যায় স্বাগতিকরা। আশয়াফ হাকিমিকে পাশ কাটিয়ে ডি-বক্সের মধ্যে দারুণ এক ক্রস দেন সুলেমান। সেখানে অপেক্ষায় থাকা গাইটান লাবোর্দে দারুণ শটে এগিয়ে দেন দলকে।

পরে দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ব্যবধান বাড়াতে এক মিনিটও সময় নেয়নি পিএসজি। খেলা পুনরায় শুরুর পর পিএসজিকে হকচকিয়ে দেয় স্বাগতিকরা। এবার গোলের যোগানদাতা লাবোর্দে। ডান দিক থেকে তার এগিয়ে দেয়া বলে বাকি কাজ সারেন ফ্ল্যাবিয়েন টেইট। দুই গোলে এগিয়ে যায় রেনে।

দুই মিনিটের মধ্যে দুই গোল হজম করেও দমে যায়নি পিএসজি। একের পর এক আক্রমণ চালাতে থাকে তারা। কিন্তু মিলছিলো না গোল। অবশেষে ৬৮ মিনিটের সময় অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার সঙ্গে ওয়ান-টু-ওয়ান করে দুর্দান্ত ফিনিশিং দেন এমবাপে। কিন্তু আক্রমণের শুরুতে অফসাইডে থাকায় বাতিল করা হয় সেই গোল।

উল্টো ব্যবধান বাড়তে পারতো রেনের। ম্যাচের ৮২ মিনিটের সময় তাদেরকে পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। তবে ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারি সেই পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নাকচ করে দেন। যার সুবাদে পিএসজির পরাজয়ের ব্যবধান আর বাড়েনি।

অবশ্য এই হারের পরেও পাকাপোক্তভাবেই পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে পিএসজি। নয় ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ২৪ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে দুই নম্বরে থাকা লেন্সের ঝুলিতে রয়েছে ১৬ পয়েন্ট। পিএসজিকে প্রথম পরাজয়ের স্বাদ দেয়া রেনে ১২ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে সাত নম্বরে।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে