ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

নাসুম-চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স মুখোমুখি অবস্থানে, আসছে বিসিবির পরবর্তী পদক্ষেপ

২০২২ এপ্রিল ১৩ ১৯:১৪:৩৯
নাসুম-চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স মুখোমুখি অবস্থানে, আসছে বিসিবির পরবর্তী পদক্ষেপ

আলমের খান: বিপিএল শেষ হলেও বিপিএলের বিতর্ক যেন শেষই হচ্ছে না। সাম্প্রতিক সময়ে সংবাদমাধ্যমে বোমা ফাটিয়েছে নাসুম আহমেদ। নাসুমের দাবি তাকে তার পূর্ণ পারিশ্রমিক দেওয়া হয়নি এবং করোনা আক্রান্ত রোগীর সাথে একই রুমে রাখা হয়েছে। তিনি বলেন"আমি উনাদের আমার ট্যাক্সের টাকাটাও দিয়ে দিতে বলেছিলাম।

ওই সময় উনারা রাজি হয়েছিল কিন্তু এরপর আমি ওই অর্থটা পাইনি"। করোণা আক্রান্ত রোগীর সাথে একই রুমে থাকার প্রসঙ্গে নাসিম বলেন"দলের সবার যখন করোনা পরীক্ষা করা হয় সে সময় আমার রুমমেটের করোনা পজিটিভ আসে। আমি রুম পরিবর্তন করার ব্যাপারে বললে তারা বলেন এটা ফলস এলার্ম হতে পারে। পরের পরীক্ষায় রুমমেটের করোনা পজেটিভ আসার পরেও আমার রুম পরিবর্তন করা হয়নি"।নাসুমের চট্টগ্রামের উপর দেওয়া দায় গুলো অনেক বেশি গুরুতর।

তবে চট্টগ্রাম কর্তৃপক্ষ এ দায় গুলো অস্বীকার করেছে। চট্টগ্রাম ফ্র্যাঞ্চাইজি পক্ষ থেকে একটি প্রেস কনফারেন্সে বলা হয়েছে"বিপিএল শুরুর অনেক আগেই আমরা ক্রিকেটারদের আইসোলেশন করে ফেলি। নাসুমের রুমমেট একটা সময়ে কোভিড পজিটিভ হয় আমরা তাকে অন্য রুমে যাওয়ার প্রস্তাব দিই। তবে নাসুম যেতে চাইনি তিনি বলেন এটা ফলস এলার্ম হতে পারে। পরের দিন রিপোর্টেই আবার নেগেটিভ আসে ওই ক্রিকেটার। ফলে আর নাসুমের রুম পরিবর্তন করা হয়নি।

সে কেন এসব কথা সংবাদমাধ্যমে বলেছে তা আমরা সঠিক বলতে পারছিনা। এছাড়া নাসুমের পারিশ্রমিকের পুরো অর্থ ও আমরা দিয়ে দিয়েছি। ট্যাক্স দেওয়ার ব্যাপারে সে আমাদের অনুরোধ করেছিল তবে সেটা চুক্তিপত্রের মধ্যে কোথাও উল্লেখিত করা হয়নি। চুক্তি অনুযায়ী তাকে আমরা পুরো পারিশ্রমিকটাই দিয়ে দিয়েছি। তার যদি কোন অতিরিক্ত চাওয়া থাকে সেটা যে কারোর থাকতেই পারে, তবে তাই বলে আমাদের ওপর পুরো পারিশ্রমিক না দেওয়ার দায় দেওয়াটা ঠিক নয়"।

নাসুম ফ্র্যাঞ্চাইজির উপর আগবাড়িয়ে কেন দায় দিবে এ প্রশ্ন করা হলে। ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তৃপক্ষ বলেন"সম্ভবত ধৈর্যের অভাবে নাসুম এই কাজটি করেছেন। সে হয়তো ভেবেছে সংবাদমাধ্যমে এসব কথা বললে তার চাওয়া গুলো সাথে সাথে মেনে নেওয়া হবে। পেশাদার ক্ষেত্রে আপনাদের কিছুটা ধৈর্যশীল হতেই হবে। ক্রিকেটারদের সাথে অনেক ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে আমাদের।

তাই এধরনের ঘটনা আমাদের জন্য একদমই অপ্রত্যাশিত"। উভয় পক্ষই একজন আরেকজনের কথাকে ভুল বলেছেন। নাসুম কিংবা চট্টগ্রাম ফ্র্যাঞ্চাইজি দুজনের মধ্যে নিশ্চিত ভাবে একজন মিথ্যা বলছেন। আর এই বিষয়টির সমাধান করতে হবে বিসিবিকে। আর তা না হলে বিপিএলের ইতিহাসে পড়বে আরেকটি কলঙ্কের দাগ।

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে