ঢাকা, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯

মানুষের কথায় কিছু যায়-আসে না, আল্লাহ সম্মান এনে দেবেন : রিজওয়ান

২০২৩ জানুয়ারি ২২ ১৮:১৯:০৮
মানুষের কথায় কিছু যায়-আসে না, আল্লাহ সম্মান এনে দেবেন : রিজওয়ান

ক্রিকেটে 'এঙ্করিং রোল' নিয়ে অনেক কথা হয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে এঙ্করিংয়ের ভূমিকা পালন করা আসলেই কতটা কার্যকরী কিংবা যৌক্তিক- এই প্রশ্ন শোনা যায় হরহামেশাই। বাংলাদেশের তামিম ইকবাল, পাকিস্তানের মোহাম্মদ রিজওয়ান- এমন অনেক ক্রিকেটার মারকুটে ব্যাটিংয়ের বদলে বেছে নেন এঙ্করিং রোলকেই।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেওয়ার আগে তামিম পুরো ক্যারিয়ারজুড়ে পালন করেছেন এই দায়িত্ব। পাকিস্তান জাতীয় দলে রিজওয়ানও এখন এই দায়িত্ব পালন করছেন। একপ্রান্ত আগলে রেখে ইনিংস বড় করার এই ভূমিকা নিয়ে এবার মুখ খুললেন পাকিস্তানি সুপারস্টার।

তিনি বলেন, 'এই ভূমিকা পালন করা অনেক কঠিন। তবে আমি তো জানি কী করতে হবে। দল আমার কাছে যা চায় তা-ই করব। এই ভূমিকা যারই থাক, কন্ডিশন ও প্রতিপক্ষ অনুযায়ী খেলতে হবে। মাঝেমাঝে একটু বিব্রত হতে হয়। টি-টোয়েন্টিতে সবাই চার-ছক্কা চায়, ৩৫ বলে ৬০-৭০ রান চায়। তবে আমার কাছে কীভাবে ম্যাচ জেতা যায়, আমি কীভাবে জয়ে অবদান রাখতে পারি এটাই গুরুত্বপূর্ণ।'

এবি ডি ভিলিয়ার্স টি-টোয়েন্টিতে বোলারের ওপর চড়াও হতেন, টেস্টে আবার রান না নিয়ে মাটি কামড়ে পড়ে থাকতেন উইকেটে। ডি ভিলিয়ার্সকে আইডল মানা রিজওয়ান সেই মন্ত্রই কাজে লাগাচ্ছেন, 'ক্রিকেটে আমার আইডল এবি ডি ভিলিয়ার্স। তার টেস্ট থেকে টি-টোয়েন্টি সব পারফরম্যান্স আমি ভালো করে লক্ষ্য করেছি। মাঝেমাঝে টি-টোয়েন্টিতে ধীর ব্যাটিংটাই হয়ে ওঠে দলের চাহিদা। দলের যখন বড় শট দরকার সেভাবে খেলেই মোমেন্টাম আনতে হবে। আল্লাহ সহায়তায় আমি সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছি।'

এঙ্করিং রোল নিয়ে তাই যত সমালচনাই হোক, রিজওয়ান তাতে একটুও বিচলিত নন। তিনি বলেন, 'আল্লাহ মস্তিষ্ক দিয়েছেন কাজে লাগানোর জন্য। অন্য কারণে নয়। আমি সেটাই চেষ্টা করি। আপনি ছক্কা হাঁকাবেন নাকি দেখে খেলবেন সেটা তো মস্তিষ্ক থেকেই আসে। মাঝেমাঝে সময় পক্ষে থাকে না। তখন দলের চাহিদা অনুযায়ী খেলতে হবে। মানুষ কী বলল তাতে কিছু যায় আসে না। সম্মান আল্লাহ এনে দেবেন।'

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে