ঢাকা, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

মুশফিকের বিতর্কিত আউট নিয়ে যা বললেন তামিম

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৩ ডিসেম্বর ০৬ ১৪:১৭:২১
মুশফিকের বিতর্কিত আউট নিয়ে যা বললেন তামিম

দুর্দান্ত ছক্কা হাঁকানোর পর ধারাভাষ্য কক্ষে সতীর্থ তামিম ইকবালকে স্বাগত জানান মুশফিক। তবে ধারাভাষ্যের সময় এক অবিশ্বাস্য দৃশ্যের সাক্ষী হন তামিম। তা মঞ্চস্থও করেন মুশফিক। প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটার হিসেবে ‘অবস্ট্র্যাক্ট দ্য ফিল্ড’ আউট হন অভিজ্ঞ এই ব্যাটার।

বাংলাদেশের ইনিংসের ৪১তম ওভারে কাইল জেমিসনের চতুর্থ বলটি রক্ষণাত্মক স্টাইলে খেলেন মুশফিক। তার ব্যাটে আঘাত করার পর বলটি পপিং ক্রিজে পড়ে ডান দিকে এগোচ্ছিল। এরপর ডান হাতে বল এগিয়ে দেন মুশফিক। আউটের আবেদন জানালেন নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা। ভিডিও রিপ্লে দেখে তৃতীয় আম্পায়ার মুশফিকরকে আউট ঘোষণা করেন।

ধারাভাষ্যে থাকা তামিম এ সময় হতাশা প্রকাশ করে বলেন, ‘খুবই হতাশার...বল তো উইকেটে হিট করছিল না। এটা করার কোনো দরকারই ছিল না। একেবারেই দুর্ভাগ্য। দল এটা ভাবতেই পারেনি, মুশফিক যা করল।’

‘আপনি এটা করতেই পারেন না। বিশেষ করে মুশফিকের মতো খেলোয়াড়ের কাছ থেকে। এটা তার চেয়ে ভালো আর কে জানবে যে এতদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছে।’

ক্রিকেটের আইনে ৩৭.১.১ ধারায় এই আউট সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘ব্যাটার যদি যে হাতে ব্যাট ধরা নেই সেই হাত দিয়ে বল ধরেন, তবে এই আউট হবেন। কিন্তু যদি চোটের হাত থেকে বাঁচতে বল ধরেন তবে তিনি আউট হবেন না।’ এই আইনটি এক সময় ‘হ্যান্ডলড দ্য বল’ আউট নামে পরিচিত ছিল। কিন্তু ২০১৭ সালে ‘হ্যান্ডলড দ্য বল আউট’ বাদ দিয়ে এই আউটকে ‘অবস্ট্রাকটিং দ্য ফিল্ড’ আউটের অর্ন্তভুক্ত করা হয়।

পুরুষদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১২তম ব্যাটার হিসেবে ‘অবস্ট্রাকটিং দ্য ফিল্ড’ আউট হলেন মুশফিক। টেস্টে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে। ১৯৫১ সালে ওভাল টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম এভাবে আউট হয়েছিলেন ইংলিশ ওপেনার লেন হাটন।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে