ঢাকা, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১

বিপিএলে  গ্রুফ পর্ব শেষে ব্যাটে-বলে এগিয়ে যারা 

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৪ ফেব্রুয়ারি ২৪ ১৬:৩৮:২৫
বিপিএলে  গ্রুফ পর্ব শেষে ব্যাটে-বলে এগিয়ে যারা 

১৯ শে জানুয়ারী থেকে ২৩ শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এক মাসেরও বেশি সময় পার হয়ে গেছে। বিপিএলে এখন পর্যন্ত ৪২টি ম্যাচ হয়েছে। সবগুলো ম্যাচই গ্রুপ পর্বে। সাতটি দলের প্রত্যেকটি রাউন্ড-রবিন ফরম্যাটে একে অপরের সাথে দুবার খেলেছে। বিপিএলে গ্রুপ পর্বের মোট ৫ রাউন্ডের ম্যাচ সম্পন্ন হয়েছে ঢাকায় তিনটি এবং সিলেট ও ​​চট্টগ্রামে একটি করে রাউন্ড।

শুক্রবার বিকেলের ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে বিপিএলের প্লে-অফ ফাইনালে নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে ফরচুন বরিশাল। পয়েন্ট টেবিলে তৃতীয় হলেও। এই ম্যাচে বরিশালের জয় নিশ্চিত করেছে খুলনার বিদায়।

বিকেলের ম্যাচে সিলেটের কাছে হেরেছে হৃদয়বিদারক খুলনা। প্রথমে ব্যাট করে তাদের সংগ্রহ মাত্র ১২৮ রান। সিলেট স্ট্রাইকার্স ২৩ রানের লিড ও ৬ উইকেট হাতে রেখেই লক্ষ্য অর্জন করে। হতাশাজনক শুরু করে টুর্নামেন্ট শেষ করেছে সিলেট দল। অন্যদিকে টানা চার ম্যাচ জিতে হেরে প্রিমিয়ার লিগ শেষ করেছে খুলনা।

বিপিএলের প্রথম পর্বের প্রকল্প শেষে হিসাব কষা হচ্ছে। বিদেশি পারফর্মারদের ভিড়ে কেমন ছিলেন দেশীয় ক্রিকেটাররা? টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যেহেতু সামনে, তাই দেশীয় ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে যাদের থাকার সম্ভাবনা আছে, তাদের কী হবে?

বিপিএলে বিদেশি ক্রিকেটারদের উপস্থিতি ছিল এবার ভিন্নরকমের। আসা-যাওয়ার মধ্যে। যারা পারফরমার, তাদের কেউ শুরু থেকে অংশ নিয়ে মাঝ পথে চলে গেছেন, কেউ আবার মাঝ পথে এসে খেলছেন এখনও, কেউ কেউ এসে কয়েকম্যাচ খেলে চলে গেছেন।

সে হিসেবে দেশি ক্রিকেটাররা বেশ ভালো সুযোগ পেয়েছে পরিসংখ্যান টেবিলে নিজেদের অবস্থান উপরের দিকে তুলে ধরতে। ব্যাটারদের মধ্যে আশার বিষয় হলো, দুই তরুণ তাওহিদ হৃদয় এবং তানজিদ হাসান তামিম- দু’জনই নিজেদের মেলে ধরতে পেরেছেন। আসরের তিন সেঞ্চুরিয়ানের মধ্যে তারা দু’জন।

যদিও শেষ দিকে এসে ধারাবাহিক ব্যাটিংয়ে রান সংগ্রাহকের তালিকায় এখন শীর্ষে অবস্থান করছেন তামিম ইকবাল। ফরচুন বরিশাল অধিনায়কের মোট রান ১২ ম্যাচে ৩২.৫৮ গড়ে ৩৯১। হাফ সেঞ্চুরি করেছেন দুটি। সর্বোচ্চ রান ৭১। যদিও আন্তর্জাতিক টি-২০ থেকে অবসর নিয়ে ফেলেছেন তিনি।

সর্বোচ্চ রান

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের টপ অর্ডার তাওহিদ হৃদয় একটি সেঞ্চুরি করেছেন। আরেকটি সেঞ্চুরির কাছাকাছি (৯১*) ইনিংস খেলেছেন। তাতে ১২ ম্যাচে ১২ ইনিংস শেষে ৩৮.৩ গড়ে তার রান ৩৮৩। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম। ১১৬ রানের অনবদ্য একটি ইনিংস খেলেছেন। ১১ ম্যাচে ৩৪.৭২ গড়ে রান করেছেন ৩৮২টি।

চতুর্থ স্থানে রয়েছেন দুর্দান্ত ঢাকার অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটার অ্যালেক্স রস। ১১ ম্যাচে ৩৯.১১ গড়ে তিনি রান করেছেন ৩৫২। পঞ্চম স্থানে রয়েছেন মুশফিকুর রহিম। ফরচুন বরিশালের এই ব্যাটারের ১২ ম্যাচে ৩১৪। হাফ সেঞ্চুরি ৩টি। তিনিও আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলেন না।

বোলারদের তালিকায় শীর্ষে শরিফুল

বোলারদের তালিকায় সবার শীর্ষে সবার আগে বিদায় নেয়া দুর্দান্ত ঢাকার পেসার শরিফুল ইসলাম। ১২ ম্যাচে তার উইকেট সংখ্যা ২২টি। ১৫.৮৬ গড়, ৭.৮১ ছিল ইকনোমি রেট। ১৭ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রংপুর রাইডার্সের সাকিব আল হাসান। ১৫.৫২ গড় এবং ইকনোমি রেট ৬.২৩ করে।

১৫ উইকেট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন শেখ মেহেদী হাসান। ১৬.৯৩ গড় এবং ৬.৯৯ ইকনোমি রেট। বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে ১৪ উইকেট নিয়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিলাল খান রয়েছেন চার নম্বর স্থানে। হাসান মাহমুদ নিয়েছেন ১৩ উইকেট।

সর্বোচ্চ উইকেট

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে