ঢাকা, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

আসল সত্য স্বীকার করে নিলেন মুমিনুল

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৪ এপ্রিল ০২ ২০:৩৫:১৯
আসল সত্য স্বীকার করে নিলেন মুমিনুল

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে পরাজয়ের দ্বার প্রান্তে দাড়িয়ে বাংলাদেশ। চতুর্থ দিন শেষে এখন ২৪৩ রানে পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ। জিততে হলো বাংলাদেশকে ৩ উইকেটে এই রান করতে হবে। কেননা আর ৩ উইকেট আছে বাংলাদেশের হাতে।

দিন শেষে সংবাদকর্মীদের মুখোমুখি হয় মুমিনুল। সংবাদ সম্মেলনে মুমিনুল বলেন, ‘ব্যাটিং তো আমার কাছে মনে হয় ঢাকা টেস্ট যদি ধরেন ঢাকা টেস্টের উইকেট ভিন্ন। এই সিরিজ ধরলে এই সিরিজে আমরা ব্যাটিং ওয়াইজ আমরা কলাপ্স করসি। এটা আমরা কোনো অজুহাত দিতে পারব না। আমরা খুব বাজে ব্যাটিং করেছি দল হিসেবে। যতটুকু করা দরকার, যেটা আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী আমরা খেলতে পারি নাই। সিরিজে আমাদের যখন যেখানে ভালো করা দরকার যা করা দরকার কোনোভাবেই আমরা করতে পারি নাই।’

ব্যর্থতার কারণ জানতে চাইলে মুমিনুল বলেন, ‘কেন তো আসলে অনেক কিছুই থাকতে পারে। এখন যদি আমি বলি এটা অনেক দিন পর টেস্ট আপনার কাছে মনে হবে এটা অজুহাত। কিন্তু দিনশেষে এটাও কাউন্ট হতে পারে। এখন আপনি বলতে পারেন আপনি তো অনেক দিন পর খেলেন নাই। হ্যাঁ আমি খেলি নাই কিন্তু অন্যরা অনেকেই সাদা বল খেলে আসছে। এগুলাই মনে হয়। হয়ত অনেক দিন পর টেস্ট খেলেছি। টেস্ট না খেললেও অনেকে ন্যাশনাল লিগ খেলেছে। হয়ত নিউজিল্যান্ড সিরিজ খেলেছি ২-৩ মাস আগে পরে আবার সাদা বলে খেলেছে অনেকেই।’

এছাড়া মুমিনুল আরও বলেছেন, ‘পুরা দিনে আমার মনে হয় আমার যদি ৪ উইকেটে যদি আমরা শেষ করতে পারতাম তাহলে হয়ত কালকে ভিন্ন কিছু হইত। তখন রান হয়ত ৩০০ হইত, রানরেট আরও বেশি থাকত। কালকের দিনে অন্য কিছু হতে পারত। উইকেট খুব তাড়াতাড়ি পড়েছে। বেশিরভাগ সবাই একইভাবে আউট হয়েছে। আমি নিজেও এটা সবার নিজেদের দায়।’

প্রস্তুতিতেও ঘাটতি ছিল বলে মনে করেন মুমিনুল। তিনি জানিয়েছেন, ‘আমার মনে হয় প্রস্তুতি কোনোভাবেই কম ছিল। সাদা বলে সবাই খেলছে। চার দিনের ম্যাচ খেললেও যে প্রস্তুতি হয়ে যেত এক দিনে তাও না। ফলাফল না হলে আসলে অনেক কিছুই মনে হয়।’

সর্বশেষ ৬ ইনিংসে টেস্ট ক্রিকেটে কেবল একবার ২০০ রান পার করতে পেরেছে বাংলাদেশ। সেটাও এই ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসেই। ব্যাটারদের দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ের খেসারত দিয়ে ম্যাচও হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। লঙ্কানদের সাথে সিরিজেও প্রথম ম্যাচে ৩২৮ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরে পিছিয়ে আছে ১-০ ব্যবধানে। এই ম্যাচ হারলে হতে হবে ধবলধোলাই।

তবে লঙ্কা সিরিজে টেস্টে ব্যর্থ হলেও ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে উজ্জ্বলতর ছিল টাইগারদের পারফরম্যান্স। টি-টোয়েন্টিতে ভালো খেললেও ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারে বাংলাদেশ। ওয়ানডেতে এবার একই ব্যবধানে জিতে নেয় সিরিজ। এবার টেস্ট ক্রিকেটে দুই দলের পার্থক্যটা বোঝাচ্ছে শ্রীলঙ্কা।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ



রে