ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ভারতের বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়তে চলেছেন হার্দিক পান্ডিয়া

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৪ এপ্রিল ১৭ ১৪:২৫:৪৮
ভারতের বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়তে চলেছেন হার্দিক পান্ডিয়া

কদিন আগে ক্রিকবাজের সঙ্গে আলাপকালে হার্শা ভোগলে জানিয়েছিলেন, শুধু ব্যাটার হার্দিককে ভারতের টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে দরকার নেই। ভারতের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকারের মতো করে ভাবছেন রোহিত শর্মা, রাহুল দ্রাবিড় এবং প্রধান নির্বাচক অজিত আগারকারও। তাদের তিন জনের চাওয়া যুক্তরাষ্ট্র এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে খেলতে হলে পুরোদমে বোলিং করতে হবে হার্দিককে। এমন প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

গুজরাট টাইটান্স থেকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে পাড়ি জমানোর পর থেকে সময়টা ভালো যাচ্ছে না হার্দিকের। এখন পর্যন্ত ছয় ম্যাচের চারটিতে বোলিং করেছেন ডানহাতি এই পেসার। প্রথম দুই ম্যাচে গুজরাট টাইচান্স এবং সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে ইনিংসের প্রথম ওভারে বোলিং করেছিলেন তিনি। অধিনায়ক হওয়ায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রথম ওভারেই বোলিং করছেন হার্দিক, এমন অভিযোগ তুলেছেন অনেকেই।

পরের দুই ম্যাচে অবশ্য বোলিংই করেননি হার্দিক। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ভারতের এই অলরাউন্ডার করেছিলেন মাত্র এক ওভার। চেন্নাই সুপার কিংসের সঙ্গে সবশেষ ম্যাচে অবশ্য হার্দিক বোলিং করেছেন ৩ ওভার। যেখানে ইনিংসের শেষ ওভারে মহেন্দ্র সিং ধোনির বিপক্ষে টানা তিন ছক্কা হজম করেছেন। শেষ পর্যন্ত ধোনির ৪ বলে ২০ রানের ইনিংসের কাছেই হারে মুম্বাই।

বোলিংয়ের মতো ব্যাটিংয়েও ছন্দ নেই হার্দিকের। ৬ ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এসেছে ১৩১ রান। এদিকে ৭ ম্যাচে ৩৬১ রান করে আইপিএলের এবারের আসরে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় সবার উপরে আছেন বিরাট কোহলি। তবুও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়া নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। এমন অবস্থায় শুধু ব্যাটার হিসেবেও পারফর্ম করতে না পারা কি বিশ্বকাপে সুযোগ পাবেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, গত সপ্তাহে মুম্বাইয়ে অধিনায়ক রোহিত এবং প্রধান কোচ দ্রাবিড়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন আগারকার। যেখানে দুই ঘণ্টার মিটিংয়ে হার্দিকের বিশ্বকাপ খেলা নিয়ে আলোচনা করেছেন। প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশ্বকাপ খেলার জন্য হার্দিককে শর্ত জুড়ে দিয়েছেন তারা। তাদের খবর অনুযায়ী, শুধু ব্যাটার নয় বিশ্বকাপ খেলতে হলে পুরোদস্তর অলরাউন্ডার হিসেবে জায়গা করে নিতে হবে। সেটার জন্য আইপিএলে পুরোদমে বোলিং করতে হবে তাকে।

হার্দিককে নিয়ে যখন উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে তখন নির্বাচকরা নজর রাখছেন শিভাম দুবের ওপর। সবশেষ দুই আইপিএলে ছক্কা মারার দক্ষতায় নিজের জাত চিনিয়েছেন তিনি। মাঝে ভারতের হয়েও দারুণ সব ইনিংস খেলেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটার। চলমান মৌসুমেও ব্যাট হাতে ছন্দে আছেন দুবে। হার্দিকের বিকল্প হিসেবে দুবেকে দেখতে চান অনেক সাবেক ক্রিকেটার ও সমর্থকরা। তবে সমস্যা হচ্ছে দুবেকে পুরোদস্তর অলরাউন্ডার হিসেবে পাওয়া যাবে না।

চেন্নাই তাকে ব্যবহার করতে কেবলই ইমপ্যাক্ট সাব ক্রিকেটার হিসেবে। তবে মিডিয়াম পেস বোলিংটা করতে পারেন দুবে। ভারত চাইলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পার্ট টাইম বোলার হিসেবে ব্যবহার করতে পারে। সেক্ষেত্রে বোলিং অপশন বাড়বে ভারতের। কয়েক সপ্তাহের মাঝেই বিশ্বকাপের দল দেবে তারা। যেখানে বিশ্বকাপ খেলার জন্য বড় দাবিদারই থাকবেন দুবে।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



রে