ঢাকা, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

MD. Razib Ali

Senior Reporter

মুস্তাফিজের দুর্দান্ত বোলিং, ম্যাচ হেরে সরাসরি যাকে দায়ি করলেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক হাসারাঙ্গা

খেলা ডেস্ক . ২৪আপডেট নিউজ
২০২৪ জুন ০৮ ১১:০৭:০৮
মুস্তাফিজের দুর্দান্ত বোলিং, ম্যাচ হেরে সরাসরি যাকে দায়ি করলেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক হাসারাঙ্গা

আজ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ফলে টস হেরে ব্যাটিং শুরু করেছে শ্রীলঙ্কা। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে শ্রীলঙ্কা। শেষ পর্যন্ত নির্ধারীত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১২৪ রান স্কোর বোর্ডে জমা করে শ্রীলঙ্কা। জয়ের জন্য বাংলাদেশের প্রয়োজন ১২৫ রান। ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৯ ওভারে ১২৫ রান তুলো বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করে মাহমুদউল্লাহ। ফলে ২ উইকেটের জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করলো বাংলাদেশ।

ছোট লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার বলে ডাক মারেন সৌম্য সরকার। ৬ বলে ৩ রান করা তামিমকে ফেরান নুয়ান থুসারা। নিজের তৃতীয় ওভারে ১৩ বলে ৭ রান করা নাজমুল হোসেন শান্তকে ফেরান নুয়ান থুসারা। তবে বাংলাদেশের জয়ের ভীত গড়ে দেন তাওহীদ হৃদয়। ২০ বলে ৪০ রান করে হাসারাঙ্গার বলে কাটা পড়েন তিনি। ঐ ওভারে পর পর তিন বলে ৩ ছক্কা মারেন তাওহীদ হৃদয়। তবে ৪র্থ বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন তিনি।

বাংলাদেশের জয়ের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন লিটন দাস। একপ্রান্ত আগলে রেখে ব্যাট করতে থাকেন লিটন দাস। ৩৮ বলে ৩৬ রান করা লিটন দাসকে ফেরান হাসারাঙ্গা। ৩ বলে ১ রান করে আউট হন রিশাদ হোসেন। ১৪ বলে ৮ রান করেন সাকিব। ডাক মারেন তাসকিন। ১৩ বলে ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদউল্লাহ। ৪ বলে ১ রান করেন তানজিম সাকিব।

তৃতীয় ওভারেই উইকেটের দেখা পায় বাংলাদেশ। ৮ বলে ১০ করে আউট হতে হয়েছে মেন্ডিসকে। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারটি করতে এসেছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। নিজের প্রথম বলেই উইকেট পান এই পেসার। মুস্তাফিজের বলে মিড অফ দিয়ে উড়িয়ে মারতে গিয়ে তানজিম সাকিবের হাতে ধরা পড়েন ৫ বলে ৪ রান করা কামিন্দু মেন্ডিস।

বাঁহাতি এই পেসারের ফুলার লেংথের স্লোয়ার ডেলিভারিতে উড়িয়ে মারতে গিয়ে কভারে থাকা নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে ক্যাচ দিয়েছেন। দারুণ ব্যাটিং করতে থাকা নিশানকাকে ফিরতে হয় ২৮ বলে ৪৭ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে। নিজের তৃতীয় ওভারে প্রথম বলেই দুই উইকেট তুলে নেন রিশাদ হোসেন। ২১ বলে ১৯ রা করা চারিথ আসালাঙ্কাকে ফেরান রিশাদ। এরপরের বলেই শূন্য রানে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাকে ফেরান তিনি। ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন রিশাদ।

আবারও নিজের শেষ ওভারে বোলিংয়ে এসে প্রথম বলেই ২৬ বলে ২১ রান করা ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে ফেরান রিশাদ হোসেন। তাসকিন তার শেষ ওভারের শেষ বলে ৩ বলে ৭ রান করা দাসুন শানাকা ফেরান তিনি। ৪ ওভারে ২৫ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন তিনি। নিজের শেষ ওভারের ৫ম বলে শূন্য রানে মহেশ থিকশানা ফেরান মুস্তাফিজ। ৪ ওভার বল করে ১৭ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন মুস্তাফিজ। নিজের শেষ ওভারের ৫ম বলে ১৯ বলে ১৬ রান করা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে ফেরান তানজিম হাসান সাকিব। ৪ ওভার বল করে ২৪ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন রিশাদ হোসেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের এই জয়ে সুপার এইটে এক পা দিয়ে রাখলো বাংলাদেশ। পয়েন্ট টেবিলে ২ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে আছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। এই ম্যাচে বাংলাদেশ যদি জয় পায় তাহলে বাংলাদেশের সুপার এইটে অলিখিত ভাবে নিশ্চিত হয়ে যাবে। তবে এই ম্যাচে হারলেও বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ গুলো নেপাল ও নেদারল্যান্ডেসের বিপক্ষে। যা বাংলাদেশের জন্য অনেক সহজ ম্যাচ হবে। এই ম্যাচ গুলো জয় পাবে বাংলাদেশ এইটাই সবাই আশা করে। আর তাহলেই বিশ্বকাপে সুপার এইট নিশ্চিত করে ফেলবে টাইগাররা।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয়ের কথা বলেছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক শান্ত। তিনি বলেন, "প্রত্যেকের শরীরী ভাষা দুর্দান্ত ছিল, আমরা আমাদের 120% দিয়েছি। গত ১০-১৫ দিন আমরা পরিকল্পনা করছি এবং সমস্ত ক্রিকেটাররা তাদের কাজ করছে। আমার মনে হয় তারা সত্যিই ভাল বোলিং করেছে। লিটনের জন্য এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল, কিন্তু সে আজ তার দক্ষতা দেখিয়েছে, আমার মনে হয় সে যেভাবে খেলেছিল তা সত্যিই সাহসী ছিল।

ম্যাচ হেরে সরাসরি ব্যাটারদের দায়ী করলেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক হাসারাঙ্গা। তিনি বলেন, "আমাদের ব্যাটাররা প্রথম ৮-১০ ওভারে সত্যিই ভাল ব্যাটিং করেছে। এর পরে আমি মনে করি আমরা খারাপ ব্যাটিং করেছি। আমরা সবাই জানি আমাদের বোলিং আক্রমণ আমাদের শক্তি। বিশেষ করে যদি ব্যাটাররা ১৫০-১৬০ করে। , আমাদের বোলিং আক্রমণটি শেষ দুটি ম্যাচে কাজ করতে পারেনি। আমাদের অলরাউন্ডারদের সাথে চার ওভার বল করতে হয়েছিল।"

বাংলাদেশ একাদশ : সৌম্য সরকার, তানজিদ হাসান তামিম, লিটন কুমার দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, তাওহীদ হৃদয়, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রিশাদ হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ ও তানজিম হাসান সাকিব।

শ্রীলঙ্কা একাদশ : পাথুম নিশাঙ্কা, কুশল মেন্ডিস, কামিন্দু মেন্ডিস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, চারিথ আসালাঙ্কা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা (অধিনায়ক), অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, দাসুন শানাকা, মহেশ থিকশানা, নুয়ান থুসারা ও মাথিশা পাথিরানা।

আপনার জন্য বাছাই করা কিছু নিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



রে