ঢাকা, সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯

১৯ চার ও ৪ ছক্কায় ঝড়ো ১৪৬ রানের ইনিংস খেলে ৩টি বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন ঋষভ পান্ট

২০২২ জুলাই ০২ ১১:৩৮:০১
১৯ চার ও ৪ ছক্কায় ঝড়ো ১৪৬ রানের ইনিংস খেলে ৩টি বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন ঋষভ পান্ট

৯৮-৫। চেনা চিত্রনাট্যে একের পর এক ভারতীয় ব্যাটার ফিরে যাচ্ছেন সাজঘরে। বিদেশে গেলে প্রথম ম্যাচে এটা ভারতীয়দের হয়েই থাকে। আর এখানে তো অসমাপ্ত সিরিজ শেষ করার জন্য মাত্র একটিই টেস্ট খেলা হবে। তাই ভারতীয়দের এই শুরু দেখে মনে হচ্ছিল শুরুতেই না সিরিজ জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয়। কিন্তু সেটা হতে দিলেন না দিল্লির বছর চব্বিশের এক যুবক। জাদেজাকে সঙ্গে নিয়ে তাবড় তাবড় বোলারদের চোখে চোখ রেখে নিজের ক্রীড়াশৈলীর অনবদ্য নিদর্শন রাখলেন ঋষভ পন্ত। ছক ভাঙা ব্যাটিংয়ে ভারতকে লড়াইয়ের জায়গায় পৌঁছে দিলেন ভারতীয় সহ-অধিনায়ক। একই সঙ্গে একের পর এক রেকর্ড ও মাইলস্টোন পেরিয়ে গেলেন তিনি। করলেন তাঁর টেস্টের পঞ্চম শতরানও। তার মধ্যে তিনটিই আবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। চারটি এসেছে বিদেশের মাটিতে।

টেস্ট ক্রিকেটে দ্রুততম একশো করার তালিকায় ভারতীয় উইকেটরক্ষকদের মধ্যে এক নম্বরে চলে গেলেন পন্ত। এদিন মাত্র ৮৯ বলে ১০০ করেন তিনি। ঋষভ ভাঙলেন ধোনির রেকর্ড যিনি ৯৩ বলে শতরান করেছিলেন। ২০০৫ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেই ঝোড়ো ইনিংস খেলেছিলেন ধোনি যা তাঁকে বিশ্বে নয়া পরিচিতি দেয়। ১৮ বছর বাদে সেই রেকর্ড ভেঙে নিজের রূপকথা লিখলেন ঋষভ। একই সঙ্গে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তাদের মাটিতে দ্বিতীয় দ্রুততম শতরানের রেকর্ড গড়লেন তিনি। ১৯৯০ সালে মহম্মদ আজহারদ্দিন মাত্র ৮৭ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন। তখনকার দিনে সেরকম ইনিংস, ভাবাই যায় না। তেমনই বিস্ময়কর প্রতিভা ছিলেন আজহার।

এদিন রীতিমত চাপের মুখে কাউন্টার অ্যাটাক করে ১৫টি চার ও একটি ছক্কার সহযোগে শতরান করেন তিনি। যখন ব্রডের বলে ফাইন লেগে বল ঢেলে কোনও ক্রমে দুই রান নিয়ে শতরান পূর্ণ করেন তিনি,সাজঘরের প্রতিক্রিয়াই বলে দিচ্ছিল কতটা ভালো এই ইনিংস। রীতিমত নিজের আসন থেকে লাফিয়ে ওঠেন রাহুল দ্রাবিড় যা সাধারণত দেখাই যায় না।

শেষ পর্যন্ত ১১১ বলে ১৪৬ রান করে আউট হন ঋষভ পন্ত। জো রুটকে মারতে গিয়ে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে আউট হন তিনি। কিন্তু তারমধ্যে হয়ে গিয়েছে অসংখ্য রেকর্ড ১৯টি চার ও চারটি ছক্কার সহযোগে। বিশেষত লিচকে ১০০-র পর একহাতে যে ছক্কাটি তিনি মারেন তা বিজ্ঞানের সাধারণ জ্ঞানকে প্রশ্নের মুখে ফেলে দেবে। এজবাস্টনে করা সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির মালিক হলেন পন্ত।

সচিন তেন্ডুলকার ও সুরেশ রায়নাকে পিছনে ফেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সে ১০০ ছক্কার রেকর্ড গড়লেন তিনি। মাত্র ২৪ বছর ২৭১ দিনে এই রেকর্ড গড়লেন তিনি। সচিনের লেগেছিল পাক্কা ২৫ বছর। রায়না করেছিলেন ২৫ বছর ৭৭ দিনের মাথায়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব দেশ মিলিয়ে এই রেকর্ড আছে শহিদ আফ্রিদির খাতায়।

হাল আমলে সাদা বলের ক্রিকেটে কিছুটা চাপে রয়েছেন ঋষভ পন্ত। মারতে গিয়ে আউট হচ্ছেন বড্ড তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে। আইপিএলেও সেটা দেখা যাচ্ছে। টেস্টে যদিও তাঁর শট নির্বাচন নিয়ে এরকম অভিযোগ ঘোর নিন্দুকরাও করবে না। এদিন যেমন লিচকে অবলীলায় মাঠের বাইরে পাঠিয়ে ছক্কার রেকর্ড গড়লেন তিনি। একই সঙ্গে পেরিয়ে গেলেন টেস্টে ২০০০ রানের গণ্ডি। এই নিয়ে তিনি চতুর্থ উইকেট রক্ষক যিনি এই রানের গণ্ডি টপকালেন।

মাত্র ৩১ টেস্টে ৫২ ইনিংসে এসেছে তাঁর এই রান। গড় ৪০-এর ওপর। শুধু ভারত নয়, বিদেশের মাটিতেও দাপটের সঙ্গে খেলেছেন ঋষভ পন্ত। ব্যাটিংয়ে একের পর এক রেকর্ড ভাঙছেন কিন্তু সব থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল তিনি ভারতের মান রাখছেন কঠিন পরিস্থিতিতে। তিনি যে লম্বা রেসের ঘোড়া এবং কেন ভারতের সেরা উইকেটরক্ষককে দলের বাইরে রাখতে পেরেছেন, তা আবারও বুঝিয়ে দিলেন এই তরুণ প্রতিভা।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে