ঢাকা, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯

রানে ফিরলেন সৌম্য, দেখেনিন খুলনাকে যত রানের টার্গেট দিল ঢাকা

২০২৩ জানুয়ারি ২৪ ২০:২৬:৫১
রানে ফিরলেন সৌম্য, দেখেনিন খুলনাকে যত রানের টার্গেট দিল ঢাকা

ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরপাক খাওয়া সৌম্য সরকার কিছুতেই যেন খোলস ছেড়ে বের হতে পারছিলেন না। চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়রা লিগেও (বিপিএল) ধারবাহিকভাবে ব্যর্থ ছিলেন তিনি। তবে অবশেষে হেসেছে সৌম্যের ব্যাট। খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে তার দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরিতে ১৯ ওভার ৪ বলে ১০৮ রান তোলে অলআউট হয়েছে ঢাকা ডমিনেটর্স।

টস হেরে আগে ব্যাটিং করতে নেমে আরও একবার ব্যর্থ ঢাকার টপ অর্ডার। কিছুতেই যেন এই টপ অর্ডার সমস্যার সমাধান খুঁজে পাচ্ছে না স্বাগতিক টিম ম্যানেজমেন্ট। খুলনার বিপক্ষে ওপেনিংয়ে সৌম্যের সঙ্গী ছিলেন মিজানুর রহমান। একাদশে সুযোগ পেয়ে তা কাজে লাগাতে পারেননি এই ওপেনার। তার ব্যাট থেকে এসেছে ১ রান।

দলীয় ৬ রানে মিজানুরকে সাজঘরে ফিরিয়ে ঢাকা শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন নাহিদুল ইসলাম। একই ওভারে উসমান ঘানিকেও ফিরিয়েছেন এই স্পিনার। ২ বল খেলে ডাক খেয়েছেন এই আফগান ব্যাটার। নাহিদুলের স্পিন বিষে এদিন নীল হয়েছে ঢাকার টপ অর্ডার।

টপ অর্ডারের পাঁচ ব্যাটারের চারজনকেই সাজঘরে ফিরতে বাধ্য করেছেন নাহিদুল। মিজানুর, উসমান ছাড়াও নাহিদের ঘূর্ণিতে বোকা বনেছেন মোহাম্মদ মিথুন এবং অ্যালেক্স ব্লেক। ৪ ওভার বোলিং করে ২ মেইডেনসহ ৬ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। যা এবারের আসরের এক ম্যাচে কোনো বোলারের সেরা বোলিং ফিগার।

ঢাকার ব্যাটারদের এই আসা-যাওয়ার মধ্যেও এক প্রান্ত আগলে রেখেছিলেন সৌম্য। ৩৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ঢাকা যখন ধুকছিল তখন নাসির হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন এই ওপেনার। লম্বা অফফর্ম কাটিয়ে খুলনার বিপক্ষে হেসেছে সৌম্যের ব্যাট। সাজঘরে ফেরার আগে দলীয় সর্বোচ্চ ৪৫ বলে ৫৭ রানের ইনিংস খেলেছেন তিনি।

অবশ্য এদিন ব্যর্থ হয়েছেন ইনফর্ম নাসির। ১১ বলে ৫ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন আসরের দ্বিতীয় সেরা রান সংগ্রাহ। অধিনায়কের মতোই খুলনার বিপক্ষে ব্যর্থ হয়েছেন আরিফুল হকও। শেষ দিকে তাসকিন আহমেদের ১২ এবং আল আমিন হোসেনের অপরাজিত ১০ রানের সুবাদে ১৯ ওভার ৪ বলে ১০৮ রান তোলে অলআউট হয়েছে ঢাকা।

পাঠকের মতামত:

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে